দরজা ভেঙে পাওয়া গেল মেডিকেল ছাত্রীর নিথর ঝুলন্ত দেহ

প্রদীপ্তা দাস
আত্মহত্যা করা প্রদীপ্তা দাস  © আনন্দবাজার

ভারতের ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজের হোস্টেলের একটি কক্ষ থেকে এক ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (১ আগস্ট) রাতে গলার ওড়না দিয়ে ফাঁস দিয়ে ওই ছাত্রীকে ঝুলতে দেখেন তার রুমমেটরা। পরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

কলেজ সূত্রে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, ওই ছাত্রীর নাম প্রদীপ্তা দাস (২২)। তিনি এমবিবিএস পঞ্চম বর্ষে অধ্যয়নরত ছিলেন। মেডিকেল কলেজের ওল্ড গার্লস লেডিস হোস্টেলের তৃতীয় তলার ১০ নম্বর কক্ষে থাকতেন প্রদীপ্তা। সঙ্গে থাকতেন দু’জন।

প্রদীপ্তার সহপাঠীরা জানিয়েছেন, সোমবার দুপুরে ক্লাস করে হোস্টেলে ফিরে আসেন তিনি। বাড়িতে ফোন করে জানন, বিশ্রাম নেবেন। তার পরই ঘরের দরজা বন্ধ করে দেন। সেই সময় তাঁর রুমমেট খেতে গিয়েছিলেন। অন্য জন আছেন বাড়িতে।

খেয়ে ফিরে এসে দরজায় ধাক্কা দেন রুমমেট। তবে দরজা খোলেননি প্রদীপ্তা। অনেক ধাক্কাধাক্কির পরও তার সাড়া পাওয়া যায়নি। এরপরই দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত নিথর দেহ পাওয়া যায়।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রদীপ্তার কক্ষ থেকে কোনও সুইসাইড নোট মেলেনি। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ এনআরএস মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ