ঔষধ দস্যুদের ভ্যাকসিন ডিসকোর্সে ঢুকতে দেয়া যাবে না

ঔষধ দস্যুদের ভ্যাকসিন ডিসকোর্সে ঢুকতে দেয়া যাবে না
অধ্যাপক ড. এ এস এম আমানুল্লাহ  © ফাইল ফটো

খুবই দুঃখের সাথে বলতে হচ্ছে যে আমাদেরকে হয়তো এই মহামারি করোনাভাইরাসের সাথে অনেক অনেক বছর এক সাথে পথ চলতে হতে পারে। আমাদের হয়তো প্রতি বছরেই ১০০ মিলিয়ন ডোজ ভ্যাকসিন লাগতে পারে।

ফলে, আমাদের ভ্যাকসিন আমাদেরকেই বানাতে হবে। এক্ষেত্রে ফার্মা বেনিয়াদের খপ্পর থেকে দূরে থাকতে হবে। আমাদের সরকারি প্রতিষ্ঠান জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিিউট (আইপিএইচ) গত ৫০ বছর ধরে ভ্যাকসিন তৈরি করে। ঔষধ দস্যুদের কুনজর পড়ায় গত ৫ বছর ধরে এটি বন্ধ হয়ে আছে। 

রাশিয়ার সহযোগিতায় এটি পুনরায় চালু করে আগামী জুলাইয়ের শেষে আমাদের ভ্যাকসিন আমরা উৎপাদন এবং রপ্তানিও করতে পারবো। একটু আইনি ঝামেলা আছে কিন্তু সেটি প্রজ্ঞাপন দিয়ে দুই দিনেই ঠিক করা যাবে।

লেখক: অধ্যাপক, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ