১৭তম নিবন্ধনের প্রিলি দ্রুত নেয়ার দাবিতে মানববন্ধনের ডাক

১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন
বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ  © ফাইল ফটো

১৭তম শিক্ষক নিবন্ধনের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা দ্রুত নেওয়ার দাবিতে মানববন্ধনের ডাক দিয়েছেন চাকরি প্রার্থীরা।  সোমবার (২০ জুন) সকাল ৯টায় বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের কার্যালয়ের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হবে।

শনিবার (১৮ জুন) রাতে মানববন্ধন আয়োজক কমিটির প্রচার সম্পাদক মো. কামরুল হাসান ও উপদেষ্টা মোশাররফ হোসেন রুবেলের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানান, ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার সার্কুলার প্রকাশ হয় ২০২০ সালের জানুয়ারিতে৷ ওই বছরের মে ও আগস্ট মাসে প্রিলি ও লিখিত পরীক্ষার তারিখ দেওয়া হয়। করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হলে পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। এরপর প্রায় আড়াই বছর কেটে গেলেও এখনো পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হয়নি। এতে ১৭তম নিবন্ধনের চাকরি প্রার্থীরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। আমাদের বয়স চলে যাচ্ছে, গণবিজ্ঞপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছি এবং হতাশায় দিনযাপন করছি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আমরা দুই দাবিতে এনটিআরসিএর সামনে মানববন্ধন করবো। প্রথমটি হলো-  আগামী এক মাসের মধ্যে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করতে হবে। আর দ্বিতীয়টি হলো টেন্ডার দিয়ে দ্রুত পরীক্ষা আয়োজন করতে হবে। না হলে পরবর্তীতে আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

তার বলেন, ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সময় থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় আড়াই বছর শেষ হতে চলছে। এরই মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সরকারি কর্ম কমিশন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষাসহ অন্যান্য অনেক সরকারি-বেসরকারি চাকরির পরীক্ষা শেষ হয়েছে। তবে ১৭তম  শিক্ষক নিবন্ধনের পরীক্ষা এখনো হয়নি। কখন পরীক্ষা হবে তাও জানে না প্রার্থীরা। এর ফলে ১৭তম নিবন্ধনে আবেদনকারীরা চরম হতাশায় ভুগছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক হিসেবে আবেদনের বয়স ৩৫ বছর। ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধনের পরীক্ষা আরও বিলম্ব হলে একজন প্রার্থী ভালো নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হলেও সে চাকরিতে আবেদন করতে পারবে না। কেননা আবেদন করার সময় অনেক প্রার্থীর বয়স ৩২ অথবা ৩৩ বছর  ছিল। তাদের অনেকের বয়স এখন ৩৫ এর দ্বারপ্রান্তে। তাই দ্রুত ১৭তম শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা গ্রহণ করলে এদেশের শিক্ষিত সমাজ জাতি গড়ার কারিগর হিসেবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবে।


x

সর্বশেষ সংবাদ