বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থান, অন্য তরুণীকে নিয়ে পালালেন জবি ছাত্র

বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থান, অন্য তরুণীকে নিয়ে পালালেন জবি ছাত্র
তরুণী ও ইনসেটে সেই জবি ছাত্র  © টিডিসি ফটো

স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে দাবিতে পাঁচদিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন এক তরুণী। এ অবস্থায় নিপুণ রায় (২৩) নামে ওই প্রেমিক পালিয়েছে এক শিক্ষকের মেয়েকে নিয়ে। জানা যায় ওই মেয়েকে বিয়েও করেছেন নিপুণ। 

এমন ঘটনা ঘটেছে নীলফামারী ডোমার উপজেলার নয়ানী বাকডোকরা বাবুপাড়া এলাকায়। এ ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে ওই এলাকায়।

প্রেমিক নিপুণ রায় আকাশ উপজেলার বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের নয়ানী বাকডোকরা বাবুপাড়ার বাবু ভুপেশ চন্দ্র রায়ের ছেলে। তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বাড়িতে অবস্থান নেওয়া তরুণীর (২১) বাড়ি সদর উপজেলায়। ১৯ জুলাই থেকে প্রেমিক নিপুণের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেন তিনি। তবে ছেলের পরিবারের পক্ষ থেকে টাকার বিনিময়ে মেয়েটিকে বাড়ি চলে যেতে বললেও যাননি। এদিকে ২৩ জুলাই রাতে বোড়াগাড়ী ইউনিয়নের এক শিক্ষকের মেয়েকে (২২) বিয়ে করে এলাকা থেকে সটকে পড়েন প্রেমিক নিপুণ।

আরও পড়ুন: বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে গুলি, নিহত ৩

অবস্থান নেওয়া কলেজছাত্রী দাবি করেন, নীলফামারী সরকারি কলেজে তাদের পরিচয় হয়। তারপর ভালো লাগা থেকে প্রেম হয়। পড়াশোনা ও চাকরির কারণে দুজনে ঢাকায় ছিলেন। সেখানে লোকনাথ মন্দিরে বিয়ে করেন তারা। চাকরি আর পড়াশোনার কারণে দুজনেই গোপন রাখেন বিষয়টি। তবে কিছুদিন ধরে রিপন বাড়িতে এসে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। শেষে নিপুনের খোঁজে তিনি এখন তার বাড়িতে অবস্থান নিচ্ছেন।

তরুণীর দাবি, তারা আমার পরিবারকে ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা দিতে চেয়েছে। তবে আমার পরিবার রাজি হয়নি। শুনেছি  সে অন্য মেয়েকে বিয়ে করেছে। অন্য মেয়েকে বিয়ে করলেও আমাকে স্ত্রীর মর্যাদার দিতে হবে। তা না হলে আত্মহত্যার পথ ছাড়া আর কিছুই থাকবে না।

নিপনের বাবা ভুপেশ চন্দ্র রায় বলেন, গত মঙ্গলবার থেকে মেয়েটি আমার বাড়িতে আছে। সে বলছে তার সঙ্গে নিপুণের বিয়ে হয়েছে। অন্যদিকে স্থানীয় এক তরুণীকে সে বিয়ে করেছে বলে শুনছি। তবে মঙ্গলবার থেকেই ছেলের সঙ্গে আমার কোনো যোগাযোগ নাই।

ডোমার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদ নবী বলেন, বিষয়টি শুনেছি। তবে এ বিষয়ে থানায় কোনো অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ এলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


x