ভ্যাকসিনের নিবন্ধন শুরু ২৬ জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারিতে দেয়া শুরু

ভ্যাকসিনের নিবন্ধন শুরু ২৬ জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারিতে দেয়া শুরু
প্রতীকী

দেশে আগামী ২১ থেকে ২৫ জানুয়ারি মধ্যে করোনাভাইরাসের টিকা আসবে। এই ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হবে ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে। এ জন্য নিবন্ধন শুরু হবে ২৬ জানুয়ারি থেকে। আজ সোমবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে করোনার ভ্যাকসিন বিষয়ে এক ব্রিফিংয়ে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) প্রফেসর এ বি এম খুরশিদ আলম এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম মুখ্য সচিবের বরাতে এ মাসেই টিকা আসার বিষয়টি জানান। তিনি বলেন, টিকা নিয়ে গতকাল রোববার মুখ্য সচিবের নেতৃত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রথমে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের কাছ থেকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আমদানি করা হচ্ছে।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান জানান, টিকার প্রথম চালানটি আসতে পারে ২১ থেকে ২৫ জানুয়ারির মধ্যে। সেরাম ইনস্টিটিউটের কাছ থেকে যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা আমদানিতে চুক্তিবদ্ধ প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস।

তিনি বলেন, কোভিশিল্ড নামের এ টিকার প্রথম চালানে আসতে পারে ৫০ লাখ ডোজ। এরপর প্রতি মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে আসবে।

এদিকে প্রথম দফায় যারা ভ্যাকসিন পাবেন তাদের তালিকা এরইমধ্যে প্রকাশ করা হয়েছে। তালিকানুযায়ী কভিড-১৯ স্বাস্থ্যসেবায় সরাসরি সম্পৃক্ত সরকারি, বেসরকারি ও প্রাইভেট স্বাস্থ্যকর্মীরা পাবেন। এরপর রয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, রাষ্ট্র পরিচালনায় কর্মকর্তা-কর্মচারী, সংবাদমাধ্যমকর্মী ও জনপ্রতিনিধিরা।

এরপর বয়স অনুযায়ী সিটি করপোরেশন ও পৌরসভার কর্মচারী, ধর্মীয় প্রতিনিধি, মৃতদেহ সৎকার কাজে নিয়োজিত ব্যক্তি, জরুরি পানি-গ্যাস-পয়ঃনিষ্কাশন-বিদ্যুৎ-ফায়ার সার্ভিস-পরিবহন কর্মী, স্থল-নৌ-বিমান বন্দর কর্মী, প্রবাসী শ্রমিক, জেলা-উপজেলায় জরুরি জনসেবায় সম্পৃক্ত সরকারি কর্মচারী, ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং স্বল্প রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জনগোষ্ঠীরা করোনার ভ্যাকসিন পাবেন। এরপর ধীরে ধীরে দেশের সবাইকে করোনার ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ