সেই ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

রাবি
পিস্তল হাতে ছবি তোলা ছাত্রলীগ নেতা   © টিডিসি ফটো

পিস্তল হাতে তোলা ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে আলোচনায় আসা সেই ছাত্রলীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-৫। সোমবার (৯ মে) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে র‍্যাব। এর আগে, রোববার রাতে রাজশাহীর বোয়ালিয়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব জানায়, পিস্তল হাতে তোলা ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় দেশব্যাপী আলোচনার সৃষ্টি হয়। ফলে ওই তরুণ আবু বক্কার সিদ্দিকী গা-ঢাকা দেন। ফেসবুকে পোস্ট করা ছবিতে দেখা গেছে, হাতে পিস্তল নিয়ে রাতুল দাঁড়িয়ে আছেন। দেখা যায়, শুধু হাতের ওপর পিস্তল এবং অপরটিতে গুলিসহ আছেন তিনি। ছবিগুলো সম্প্রতি ফেসবুকে আপলোড করা হয়ে ছিল। বৃহস্পতিবার ছবিগুলো আলোচনায় আসে, যা বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।

র‍্যাব আরও জানায়, এ ঘটনায় অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মতো র‍্যাবও ছায়াতদন্ত শুরু করে এবং রাতুলকে ধরতে অভিযান চালায়। গতকাল রোববার র‍্যাব-৫, সিপিএসসির অভিযানে রাজশাহী মহানগরের বোয়ালিয়া থানা এলাকার ‘গ্র্যান্ড তোফা হল বিল্ডিং’ থেকে তাকে আটক করা হয়। তাঁর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাজশাহী মহানগরের বোয়ালিয়া থানার সাগরপাড়া মহল্লার পাকা রাস্তার পশ্চিম পাশে অবস্থিত পরিত্যক্ত জমিদার বাড়ি থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন ও তিনটি গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‍্যাব জানিয়েছে, বাহিনীটির কাছে আবু বক্কার সিদ্দিকী ওরফে রাতুল স্বীকার করেছে, এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের জন্য তিনি নিজের কাছে পিস্তল রাখতেন। তিনি পাবনায় বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পরিচয় ব্যবহার করে এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করতেন। ফেসবুকে ছবি দেওয়ার মূল উদ্দেশ্য ছিল সবাই যাতে জানে, তাঁর কাছে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র আছে এবং তিনি নিজেকে বড় ধরনের সন্ত্রাসী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন।

আরও পড়ুন : গুগলে ডাক পেলেন বাংলাদেশি আদ্রীকা, বার্ষিক বেতন ১ লাখ ডলার

জানা গেছে, তিনি ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। ফেসবুকের তথ্যমতে পিস্তল হাতে থাকা আবু বক্কার সিদ্দিকী রাতুল সুজানগর উপজেলার মানিকহাট ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এবং সদ্য বিলুপ্ত পাবনা জেলা ছাত্রলীগের কর্মসূচি ও পরিকল্পনা সম্পাদক। নিজেই ফেসবুকে পিস্তল হাতে ছবি পোস্ট করেছিলেন তিনি। রাতুল নাজিরগঞ্জ স্কুল অ্যান্ড কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মোস্তফা কামাল বাবুর ছেলে। 

এর আগে, একাধিক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, বিভিন্ন দলের সাথে থাকা রাতুল এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তিনি দীর্ঘদিন পিস্তল দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে অপকর্ম করে আসছে।


x