চট্টগ্রামে গ্রন্থমেলা স্থগিত

চট্টগ্রামে গ্রন্থমেলা স্থগিত
  © ফাইল ফটো

করোনাভাইরাস মহামারির সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ‘বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত অমর একুশে বই মেলা চট্টগ্রাম’ স্থগিত করা হয়েছে। দুই দফা পিছিয়ে ২৯ মার্চ থেকে এবারের বইমেলা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সর্বশেষ সিদ্ধান্তে মেলাটি আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে।

আজ শনিবার বিকেলে আন্দরকিল্লার কেবি আবদুচ ছাত্তার মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন ও মেলার সহযোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করে এ তথ্য জানান চট্টগ্রাম সিটি মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন বই মেলার আহ্বায়ক নিছার উদ্দিন আহম্মেদ মঞ্জু, চসিকের প্রধান নির্বাহী শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া, চট্টগ্রাম সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদের সদস্য সচিব জামাল উদ্দিন, কবি হোসাইন কবির, অধ্যাপক মাছুম চৌধুরী, লেখক মোদাচ্ছের আলী, শিল্পী দীপেন চৌধুরী প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় মেয়র বলেন, করোনার সংক্রমণ বাড়ছে। পরিস্থিতি দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে। সবাই উদ্বিগ্ন। জেলা প্রশাসন বিভিন্ন নির্দেশনা জারি করেছে। বই মেলার প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিলাম আমরা। কিন্তু পরিবেশ ও পরিস্থিতির কারণে বই মেলা পিছিয়ে দিতে হচ্ছে।

এবারের মেলায় ঢাকা ও চট্টগ্রামের ১২৮টি প্রকাশনা সংস্থা অংশগ্রহণের কথা ছিল। যার মধ্যে ৮০টি ঢাকার প্রকাশনা সংস্থা। এরপর আরও কয়েকজন নিজেদের সংবাদকর্মী ও সাংস্কৃতিক সংগঠক মেলা স্থগিতের প্রস্তাব করেন। সাংস্কৃতিক সংগঠক দেওয়ান মকসুদ রোজার ঈদের পর বর্ষা শুরু হবে উল্লেখ করে সবদিক বিবেচনায় নভেম্বরে মেলা আয়োজনের প্রস্তাব করেন।

মেলার উদ্যোক্তা সৃজনশীল প্রকাশনা পরিষদের পক্ষে মেলা আয়োজক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক জামাল উদ্দিন বলেন, দুর্ভাগ্য করোনা পরিস্থিতির কারণে ফেব্রুয়ারিতে মেলা আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। ২৩ মার্চ মেলা শুরু হলে এক সপ্তাহ হয়ে যেত। অনিবার্য কারণে হয়নি।

তিনি বলেন, ঢাকার প্রকাশকদের সাথে কথা হয়েছে। প্রতিদিন পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। তারাও বলেছেন পরিস্থিতি আরও খারাপ হলে সরকারি কোনো ঘোষণা আসতে পারে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় ঈদের পর মাসব্যাপী মেলা করা যেতে পারে।


মন্তব্য