রাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ, আসামির জামিন স্থগিত

রাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ, আসামির জামিন স্থগিত
আসামি মো. মাহফুজুর রহমান  © ফাইল ফটো

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে করা মামলায় গ্রেফতার হওয়া একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মো. মাহফুজুর রহমানকে হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত। আজ মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর আদালত এ আদেশ দেন।

হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে আট সপ্তাহের জন্য হাইকোর্টের জামিনাদেশ ওপর স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে। ফলে জামিনে মাহফুজের কারা মুক্তি আটকে গেছে বলে জানান আইনজীবীরা।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যার্টনি জেনারেল শেখ মোহাম্মদ মোরশেদ। আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার এ বি এম আলতাফ হোসেন।

জানা গেছে, গত বছরের ২৪ জানুয়ারি রাতে ওই ছাত্রীকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন কাজলা সাঁকোপাড়া এলাকার একটি মেসে নিয়ে যান মাহফুজুর। বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে ওই ছাত্রী সেখানে ধর্ষণের শিকার হন। ওই সময় ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে তার বন্ধু বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী প্লাবন সরকার, রাফসান, জয়, জীবন ও বিশাল।

পরে ছাত্রীর কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে তারা। তাদের দাবিকৃত টাকা না দিলে ধারণকৃত ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ওই দিন গভীর রাতে ছাত্রীকে ছেড়ে দেয়।

এরপর ওই বছরের ২৭ জানুয়ারি দুপুরে ধর্ষণের শিকার ছাত্রী মতিহার থানায় মামলা করেন। এরপর অভিযান চালিয়ে মাহফুজুর রহমান ও তার দুই বন্ধু প্লাবন সরকার এবং বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্র রাফসানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মাহফুজুর রাবির অর্থনীতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ও রাবি শাখা ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী ছিলেন।

ওই মামলায় গত ২৫ মার্চ হাইকোর্ট মাহফুজুর রহমানকে ছয় মাসের অন্তবর্তীকালীন জামিন দেন। এই আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল বিভাগে আবেদন করে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ