রাবিতে মাদকের ব্যাপারে ‘জিরো টলারেন্স’ ঘোষণা

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনে আয়োজিত অনুষ্ঠান
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনে আয়োজিত অনুষ্ঠান  © টিডিসি ফটো

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ক্যাম্পাসে মাদকের ব্যাপারে ‘জিরো টলারেন্স’ ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ক্যাম্পাসকে মাদকের সংস্পর্শ থেকে মুক্ত রাখতে বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনে আয়োজিত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বৈঠক সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি বন্ধ ক্যাম্পাসে মাদকের দৌরাত্মকে বন্ধ এবং ক্যাম্পাসের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি এবং অন্যান্য কর্মচারীদের নিয়ে এই বৈঠকের আয়োজন করেন প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান। সেখানে ক্যাম্পাসে মাদকের সাথে জড়িতদের চিহ্নিতকরণ ও বহিরাগতদের অবাধ বিচরণ নিয়ন্ত্রণ রাখতে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সহকারী প্রক্টরসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

করোনার ছুটিতে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় ফাঁকা ক্যাম্পাসে অনেকেই মাদক সেবন করছে এমন তথ্য পাওয়া গেছে। ফলে মাদকসেবী ও মাদকের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করতেই এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে। ক্যাম্পাসের মাদকসেবী ও মাদকের সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রক্টর।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, ক্যাম্পাসে মাদক সেবীদের সাথে কোন আপোষ নেই। ক্যাম্পাসে মাদকের ব্যাপারে ‘জিরো টলারেন্স’। কেননা প্রধানমন্ত্রী নিজে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছেন। আর পুলিশ প্রশাসন এই ব্যাপারে খুব সজাগ। সুতরাং এ ব্যাপারে কোন আপোষ নেই।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ