ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কায় বাংলাদেশ

দ্বিতীয় টেস্টে ব্যাটিং বিপর্যয়
ব্যাটিং বিপর্যয়ে টাইগাররা  © সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে এসেই খেই হারিয়ে ফেললো বাংলাদেশ। কিউইদের সামনে বোলিং-ব্যাটিং কোনো সেক্টরেই প্রতিরোধ গড়তে পারেনি টাইগাররা। প্রথম ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের করা ৫২১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১২৬ রানেই গুটিয়ে যায় মুমিনুলরা। 

ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংস খেলতে নেমে মাত্র ২৭ রানেই ভেঙে যায় বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটি। শুরু থেকেই দারুণ আস্থায় খেলতে থাকা সাদমান ৪৮ বলে ২১ রান করে আউট হন লেগ স্টাম্পের বাইরের বলে কিউই কিপার টম ব্লান্ডেলের দুর্দান্ত ক্যাচে।

সাদমান সাজঘরে ফিরে যাওয়ার পর নাজমুল হোসেন শান্ত ও মোহাম্মদ নাঈম মিলে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে করেন ৪৪ রান। দলীয় ৭১ রানে ফিরে যান শান্ত।  নিল ওয়্যাগনারের শর্ট বলের স্রোতে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে নামা শান্ত সেই রোমাঞ্চের বলি হয়েই ফেরেন ৫ চার ও ১ ছক্কায় ২৯ রান করে।

এরপর উইকেটে আসেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। তৃতীয় উইকেট জুটিতে মোহাম্মদ নাঈম-মুমিনুল হক করেন ৩৪ রান। দলীয় ১০৫ রানের মাথায় নাঈম ফিরে যান ব্যক্তিগত ২৪ রান করে। বাংলাদেশের চতুর্থ উইকেট জুটি মাত্র ১৮ রানেই ভেঙে যান। ব্যক্তিগত ৩৭ রান করে ফিরে যান মুমিনুল হক। এরপর উইকেটে আসেন ইয়াসির আলী। তিনিও বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি।ব্যক্তিগত মাত্র ২ রান করে বিদায় নেন তিনি।

আরও পড়ুন- টিকা ছাড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যাওয়া যাবে না, প্রজ্ঞাপন জারি

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৫৩ ওভারে ৫ উইকেটে ১৫২ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। ইনিংস পরাজয় এড়াতে আরও ২৬৪ রান করতে হবে মুমিনুল হকদের। ক্রিজে রয়েছেন লিটন দাস (২৩) ও নুরুল হাসান (৬) ।

এর আগে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের প্রথম পাঁচ ব্যাটারের মধ্যে সর্বোচ্চ রান করেন লিটন দাস (৮) । নাঈম শেখ ও মুমিনুল হক শূন্য। সাদমান ইসলাম সাত, নাজমুল হোসেন শান্ত চার। মাত্র ২৭ রানে টপঅর্ডারের পাঁচ উইকেট নেই। এমন শুরুর পর ঘুরে দাঁড়ানো কঠিন।  প্রথম ইনিংসে ৫২১ রান করা নিউজিল্যান্ডের চেয়ে ৩৯৫ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ।

প্রথম টেস্টে অবিস্মরণীয় জয়ের পর এমন পারফরম্যান্সে হতাশ বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স। দ্বিতীয়দিনের খেলা শেষে তিনি বলেন, ‘আমরা হতাশ। গত সপ্তাহে সবাই অসাধারণ খেলেছে। মানসম্পন্ন বোলিং বিভাগের বিপক্ষে ১৭৩ ওভার ব্যাটিং করেছিলাম আমরা। নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় ম্যাচে তেড়েফুড়ে ফিরে আসবে, এটা প্রত্যাশিতই ছিল।’

আরও পড়ুন- ১১ বিধিনিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

প্রিন্স বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড অফ স্টাম্পের বাইরে প্রচুর বল করেছে। তারা বাউন্সি উইকেটে খেলে অভ্যস্ত। আমাদের ছেলেরা বেশি অভ্যস্ত বল খেলতে।’ তিনি বলেন, ‘আগের টেস্টে আমরা বল বেশি ছেড়েছি। ব্যাকফুটে ভালো খেলেছি।’


মন্তব্য

x