৩ সপ্তাহ পরও জবি ছাত্রী যৌন নিপীড়নের ঘটনায় ধরা পড়েনি কেউ

জবি
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়  © ফাইল ছবি

মামলার তিন সপ্তাহের বেশি সময় পার হলেও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নারী শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়নের ঘটনায় ধরা পড়েনি কেউ। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর পুলিশের তৎপরতার কথা জানালেও ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী বলছেন ভিন্ন কথা। 

ঢাকার সূত্রাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মাদ মামুনুর রহমান বলেন, 'তদন্ত চলছে। আমরা বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজনকে দেখিয়েছি, কিন্তু তিনি ( ভুক্তভোগী)  কাউকে শনাক্ত করেননি। আশা করছি দ্রুত অপরাধীকে ধরতে পারবো।'

ভুক্তভোগী ওই নারী শিক্ষার্থী বলেন, 'থানা থেকে এখনও তেমন কোনও আপডেট আমাকে জানানো হয়নি ।'

বিশ্ববিদ্যালয়ের নিপীড়ন বিরোধী সেলের দায়িত্বে থাকা অধ্যাপক হেলেনা ফেরদৌসী বলেন, 'পুলিশ কেন এখনও কোনো অপরাধীকে ধরতে পারেনি বুঝতে পারছি না। তবে পুলিশকে এ ধরনের ঘটনায় আরও বেশি সক্রিয় হওয়া উচিত।'

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, 'পুলিশ চেষ্টা করছে। তারা বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করেছে ওই সময়ে। কিন্তু ভুক্তভোগী তাদের কাউকে অপরাধী হিসেবে শনাক্ত করেনি। তবে পুলিশ তৎপর আছে। আমরা নিয়মিত থানার সাথে যোগাযোগ রাখছি। '

উল্লেখ্য, গত ২৭ জুন পুরান ঢাকার কলতাবাজার এলাকায় রাত সাড়ে ৯টার দিকে জবির ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী প্রয়োজনীয় বাজার নিয়ে বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় কবি নজরুল কলেজের পাশে উইনস্টন গলিতে প্রবেশ করলে নির্জন রাস্তায় একা পেয়ে যৌন নিপীড়নের ঘটনা ঘটায় এক যুবক। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রী প্রথমে সূত্রাপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি ও পরে মামলা করেন।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ