বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সঙ্গে সমন্বয় করে পেছাবে বিসিএস পরীক্ষা

বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সঙ্গে সমন্বয় করে পেছাবে বিসিএস পরীক্ষা

পবিত্র ঈদুল ফিতরের পর আগামী ২৪ মে থেকে দেশের সব ধরনের বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস শুরু হবে। আর তার এক সপ্তাহ আগে ১৭ মে আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে। সোমাবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিসিএসের আবেদন ও পরীক্ষার তারিখ পিছিয়ে দেয়া হবে। অথ্যাৎ বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এটি করা হবে। তাছাড়া করোনার কারণে বিসিএসের জন্য আবেদনে বয়সসীমা অতিক্রান্ত হয়ে কোন শিক্ষার্থী যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয় সে বিষয়ের জন্য সরকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

করোনা পরিস্থিতি সর্ম্পকে মন্ত্রী বলেন, করোনা মোকাবিলায় অনেক দেশের তুলনায় বাংলাদেশ বেশ সাফল্য অর্জন করেছে। সংক্রমণের হার কমে আসছে। টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশে বড় সাফল্য দেখছি।

তিনি বলেন, যুক্তরাজ্য, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতে করোনার নতুন ধরণ পাওয়া গেছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন এটি বেশি সংক্রমণ ঘটাতে পারন। এ বিষয়ে আমাদের নজর রাখতে হচ্ছে।

আবাসিক হল খুলে দেওয়ার বিষয়ে মন্ত্রী জানান, এজন্য সব বিশ্ববিদ্যালয়েরই প্রস্তুতি নিতে হবে। প্রয়োজনে হলের অবকাঠামো সংস্কার করবেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ