গরু হত্যায় জড়িত সন্দেহে ভারতে ২ জনকে পিটিয়ে হত্যা

হত্যাকাণ্ড
  © সংগৃহীত

ভারতের মধ্যপ্রদেশে গরু হত্যায় জড়িত সন্দেহে দুই আদিবাসী ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় অপর এক ব্যক্তি আহত হয়েছেন। মধ্যপ্রদেশের সেওনি জেলায় এ ঘটনা ঘটে। খবর এনডিটিভির।

পুলিশ জানায়, ২০ জনের একটি দল আদিবাসীদের ঘরে যায় এবং তাদের গরু হত্যায় অভিযুক্ত বলে দাবি করে। এর পর তারা দুই ব্যক্তিকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে আহত করে। আহত ওই দুই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে তাদের মৃত্যু হয়।

সেওনি পুলিশের প্রধান ও অন্য কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অ্যাডিশনাল সুপারিনটেনডেন্ট অব পুলিশ এসকে মারাভি বলেন, দুই আদিবাসী ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। জানা যাচ্ছে, ১৫ থেকে ২০ জন লোক ভুক্তভোগীদের বাড়ি গিয়েছিলেন। সেখানে তাদের গরু হত্যায় অভিযুক্ত করার পর মারধর করা হয়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেওয়া দুইজনের মৃত্যু হয়। অপর একজনের আঘাত মাঝারি ধরনের।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের খুঁজছে পুলিশ। আমরা দুই তিনজন সন্দেহভাজনকে আটক করেছি। ১২ কেজির মতো গরুর মাংস ভুক্তভোগীদের ঘরে পাওয়া গেছে।

হামলায় আহত ব্যক্তি ব্রজেশ বাট্টি বলেন, সম্পদ বাট্টি ও ধানশাকে লাঠি দিয়ে নৃশংসভাবে পেটানো হচ্ছিল দেখে আমি সেখানে যাই। এর পর আমিও মারধরের শিকার হই।

এদিকে মধ্যপ্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও কংগ্রেসের নেতা কমল নাথ এ ঘটনার উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের পাশাপাশি দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সরকারের কাছে দাবি জানাই, এ ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের ঘোষণা দিয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

তিনি আরও বলেন, স্থানীয় কিছু ব্যক্তি দাবি করেছেন, এ ঘটনার সঙ্গে বজরং দলের সম্পৃক্ততা রয়েছে।

কমল নাথের দাবি, জাতীয় অপরাধ রেকর্ড ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী, মধ্যপ্রদেশে আদিবাসীদের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি অপরাধের ঘটনা ঘটেছে।


x