সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের পাশে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন

সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের পাশে ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন

সুবিধা বঞ্চিত, ঝড়েপড়া ও এতিম শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষার আলো চড়াতে ঢাকা আহছানিয়া মিশন অগ্রনী ভূমিকা রেখে চলেছে। ২০১৩ সালের ডাম-সিএলসি প্রকল্পের আওতায় রাঙ্গুনিয়া ও রাউজান উপজেলার ৯০টি শিশু শিখন কেন্দ্রে এই কার্যক্রম চলছে। ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগে শিক্ষার আলো পেয়ে খুশি শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও। 

প্রজেক্টের এরিয়া ম্যানেজার মো. আলমীর হোসাইন বলেন, ‘প্রকল্পের আওতায় ৬-১৪ বছর বয়সী সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে উপানুষ্ঠানিক প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। ব্যতিক্রমধর্মী মাল্টিগ্রেড শিক্ষা শিখন পদ্ধতির মাধ্যমে শিশুদের যোগ্যতা ভিত্তিক শিক্ষার সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে। এভাবে শিক্ষা বিমুখ শিশুদের শিক্ষার আওতায় এনে প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করছে ঢাকা আহসানিয়া মিশন।’ 

তিনি আরো বলেন, ‘রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় ৬৫টি শিশু শিখন কেন্দ্রের মাধ্যমে ছাত্র -৮’শত ২৩ জন এবং ছাত্রী -১ হাজার ৭৮ জনকে পাঠ দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও রাউজান উপজেলায় ২৫ টি শিশু শিখন কেন্দ্রের মাধ্যমে ছাত্র- ৩’শত ৮০ জন এবং ছাত্রী-৩’শত ৯৮ জন শিক্ষার্থীকে শিক্ষার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে।

এভাবে এই দুই উপজেলায় ৯০টি কেন্দ্রের মাধ্যমে সর্বমোট ২ হাজার ৬’শত ৭৯ জন অধিকার বঞ্চিত শিশু প্রাথমিক শিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে। উপজেলার সাধারনত র্দ্গূম ও পাহাড়ী এলাকায় শিশু শিখন কেন্দ্র গুলো স্থাপনের মাধ্যমে অবহেলিত ও দরিদ্র শিশুদের শিক্ষাদান করা হচ্ছে বলে।’ 

সরেজমিনে ইসলামপুর ইউনিয়নের গাবতল কাতালশাহ পাড়ার পাহাড়ে অবস্থিত ২৬৮ নং শিশু শিখন কেন্দ্রে গেলে দেখা যায়, শিশুদের ১৩ তম ত্রৈমাসিক মূল্যায়ণ পরীক্ষা চলছে। মূল্যায়ণে শিশুসহ কমিউনিটির ব্যাপক আগ্রহ দেখা যায়। কেন্দ্র ব্যবস্থাপনা কমিটি ও অভিভাবকগণ শিশুদের মূল্যায়ণ দেখতে আসেন এবং খোজ খবর নেন। সংস্থাটি এ প্রকল্প বাস্তবায়নে স্থানীয় প্রশাসনসহ কমিউনিটির সর্বস্তরের জনগণকে সম্পৃক্ত করেছে। 

উপস্থিত অভিভাবকদের কয়েকজন জানিয়েছেন, ‘আহছানিয়া মিশনের মাধ্যমে রাঙ্গুনিয়া ও রাউজান উপজেলার সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করছে। এভাবে যদি অন্যান্যরাও এগিয়ে আসতো তবে আমাদের দেশ আরো এগিয়ে যেতো।’

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন চৌধুরী মিল্টন জানান, ‘আহছানিয়া মিশনের এই কার্যক্রম প্রশংসনিয়। আমি নিজে তাদের এই কার্যক্রমের খবর রাখছি। তাদের প্রকল্প বাস্তবায়নে ইউনিয়ন পরিষদের সার্বিক সহযোগিতা থাকবে।’


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ