ভারতে মহানবীকে অবমাননা, দেশে ক্যাম্পাসে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ

মহানবীকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা
মহানবীকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা  © ফাইল ছবি

ইসলামের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতের বর্তমান সরকার সমর্থিত রাজনৈতিক দল বিজেপির দুই শীর্ষ নেতার কটূক্তির প্রতিবাদে বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‍বুধবার ও বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ আরও বেশকিছু ক্যাম্পাসে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

মহানবীকে নিয়ে বিজেপি মূখপাত্র নুপূর শর্মা ও দিল্লি ইউনিটের প্রধান নাভিল জিন্দালের কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করেছেন শিক্ষার্থীরা। কর্মসূচিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী আকরাম হোসাইন বলেন, আমরা দেখেছি ভারতের বর্তমান সরকারের অধীনে বিভিন্ন সময়ে মুসলমানদের নির্যাতন, এনআরসির নামে মুসলমানদের নাগরিকহীন-রাষ্ট্রহীন করে দেওয়া চক্রান্ত হচ্ছে। তারই অংশ ছিল রাসূল (সা.)-এর অবমাননা। বর্তমানে সারাবিশ্ব আমেরিকা, ইউরোপ এবং মধ্যপ্রাচ্যসহ সকল রাষ্ট্র যেভাবে এই বিষয়ের রাষ্ট্রীয় প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে।

একই ঘটনায় বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করেছেন শিক্ষার্থীরা। এতে শিক্ষার্থীদের শত শত শিক্ষার্থী অংশ নেন। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ আল মুছাদ্দিকের সঞ্চালনায় একাউন্টটিং বিভাগের ফারুক হাসান, ইসলামের ইতিহাস বিভাগের জাহিদুল ইসলাম, পরিসংখ্যান বিভাগের এসএম তাইমুন ইসলাম ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শাখাওয়াত হোসেন শিপনসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা বক্তব্য রাখেন।

এদিন বৃষ্টি উপেক্ষা করে সকাল থেকেই শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে জড়ো হতে থাকেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থীরা। পরে সকাল ১১টার দিকে মহানবীর অবমাননার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে শিক্ষার্থীরা ‘Our prophet, our honour’, ‘protest against any disrespect of my prophet (s)’ ইত্যাদি শিরোনামে প্ল্যাকার্ড হাতে কর্মসূচিতে অংশ নেন।

তারা বলেন, রাসুলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে ভালোবাসা আমাদের ঈমানি দায়িত্ব। এটা কোন রাজনৈতিক সমাবেশ নয়, বরং বাঙালী মুসলমানদের ঈমানি চেতনা ও রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রতি ভালোবাসা থেকে আজকের এই মানববন্ধন।

আরও পড়ুন: কোরআন অবমাননার অভিযোগে আফগান মডেল আটক

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই নেতার কটূক্তির প্রতিবাদে ও রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা জানানোর দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার সংলগ্ন সড়কে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন তারা। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার সংলগ্ন সড়ক থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন শিক্ষার্থীরা।

একই দাবিতে নারায়ে তাকবির ধ্বনিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ক্যাম্পাসের শহীদ বুদ্ধিজীবী চত্বরে হাজার হাজার শিক্ষার্থী একত্রিত হয়ে মহানবীকে কটূক্তির প্রতিবাদ জানিয়েছেন। এসময় শিক্ষার্থীরা একটি মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ শেষে প্যারিস রোডে সমাবেশে অংশ নেন।

মহানবীকে নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্যে প্রতিবাদে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করেছেন শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধন শেষে শিক্ষার্থীরা বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়কের গোল চত্বর পর্যন্ত বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেন। তারা বলেন, মুসলিমদের চিন্তা-চেতনায় আঘাত করা কোনভাবেই কাম্য নয়। বিশ্ব মুসলমানদের হৃদয়ের স্পন্দন মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য কোন মুসলমানই মেনে নিতে পারে না।

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতের বিজেপির দুই নেতার কটূক্তির প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে আয়োজিত মানববন্ধনে প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ নেন। এসময় শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ভারতীয় একটি টেলিভিশন বিতর্কে অংশ নিয়ে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) ও তার স্ত্রী আয়েশা (রা.) সম্পর্কে অবমাননাকর বক্তব্য দেন নূপুর শর্মা। পরে একই বিষয়ে টুইটারে পোস্ট দেন নাভিন কুমার জিন্দাল। এ নিয়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ইতোমধ্যে এ ঘটনায় বিশ্বের অনেক মুসলিম দেশ প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

এদিকে, মহানবীকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের দুই সপ্তাহ পর ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির বরখাস্তকৃত মুখপাত্র নুপুর শর্মার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সমাজের শান্তি বিনষ্ট, অস্থিতিশীলতা তৈরি এবং বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে বিজেপির এই নেতা ছাড়াও আরও কয়েকজনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার দিল্লি পুলিশ এই মামলা দায়ের করেছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ