ইংরেজি বর্ণ ‘এইচ’ এ লুকায়িত কিশোরীর মৃত্যু রহস্য

  © প্রতীকী ছবি

ইংরেজি বর্ণ এইচ-এ লুকিয়ে আছে চরফ্যাশনের দশম শ্রেণির ছাত্রী সানজিদা আক্তারের  মৃত্যুরহস্য । রোববার দিবাগত রাতের শেষাংশে শশীভূষণ থানার এওয়াজপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের নিজ বাড়ির বসতঘরের আড়ায় ঝুলে আত্মহত্যা করেন ওই শিক্ষার্থী।

সানজিদা স্থানীয় শশীভূষণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী এবং ওই গ্রামের রুহুল আমীনের মেয়ে। আত্মহত্যার সংবাদ পেয়ে গতকাল সোমবার সকালে শশীভূষণ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ভোলা মর্গে পাঠিয়েছেন। 

শশীভূষণ থানার উপ-পরিদর্শক দীপংকর কর্মকার জানান, স্থানীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী সানজিদা রোববার সন্ধ্যায় পরিবারের সকলের সাথে খেয়ে প্রতিদিনের মতো ঘুমিয়ে পড়ে। সকালে নির্ধারিত সময়ে ঘুম থেকে না উঠায় ডাকতে গিয়ে আড়ার সাথে তার তার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় পরিবার। 

আরো পড়ুন: আকিব থেকে সাকিব: চমেকে দুর্ধর্ষ ছাত্রলীগ

পুলিশ আরো জানায়, সানজিদার শয়নকক্ষে তল্লাশী করে তাঁর ডায়েরীতে একটি রহস্যজনক চিরকুট পাওয়া গেছে। যাতে লেখা ছিল ‘ব্যতিক্রম মা,সবার মা থেকে আমার মা আলাদা’। এছাড়াও বইপত্রসহ ডায়েরীর বিভিন্ন পাতায় ইংরেজি বর্ণ এস(S) প্লাস(+)  এইচ (H) লেখা দেখা যায়। সানজিদা থেকে ‘এস’ হলেও ‘এইচ’ নিয়েই ঘুরপাক খাচ্ছে এই মৃত্যুর রহস্য, বলছে পুলিশ। 

ধারনা করা হচ্ছে- প্রেমঘটিত কোন ঘটনাকে কেন্দ্র করে মায়ের সাথে অভিমান থেকে এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া মৃত দেহে আঘাত বা অন্যকোন অস্বাভাবিক দাগ ছিল না বলে নিশ্চিত করেছেন পুলিশের ওই কর্মকর্তা। 

সানজিদার পরিবারের সদস্যরা জানান, সে খুব নিরিবিলি স্বভাবের ছিল। কারো সাথে প্রেমঘটিত কোন বিষয় ছিল বলেও তাদের জানা নেই। 

শশীভূষণ থানার অফিসার ইন চার্জ মিজানুর রহমান পাটওয়ারী বলেন, মৃত্যুর কারণ তদন্ত করা হচ্ছে। লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।