নতুন শিক্ষাবর্ষকে উপভোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক করতে ভাইবারের উদ্যোগ

মেসেজিং অ্যাপ রাকুতেন ভাইবার নতুন শিক্ষাবর্ষ চলাকালীন শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের জন্য উন্নতমানের পৃথক ফিচার চালু করেছে
মেসেজিং অ্যাপ রাকুতেন ভাইবার  © টিডিসি ফটো

সহজ ও নিরাপদ যোগাযোগে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় মেসেজিং অ্যাপ রাকুতেন ভাইবার নতুন শিক্ষাবর্ষ চলাকালীন শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের জন্য উন্নতমানের পৃথক ফিচার চালু করেছে। জাপানের মালিকানাধীন যোগাযোগ প্ল্যাটফর্মটি বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী গ্রুপ চ্যাট ও কমিউনিটির জন্য জরিপে কুইজ মোড চালু করেছে।

কমিউনিটিতে বিষয়ভিত্তিক ক্ষেত্র ছাড়াও নানা কিছু বোঝার ক্ষেত্রে সম্প্রতি শেষ হওয়া ক্লাসে শিক্ষার্থীরা কতটুকু বুঝতে পেরেছে কুইজ মোডের মাধ্যমে শিক্ষকরা তা দ্রুত বুঝতে পারবেন। তিনটি সাধারণ ধাপে কুইজটি সম্পন্ন করা যাবে।

প্রথমে, একটি কমিউনিটি অথবা গ্রুপ চ্যাট নির্বাচন করতে হবে এবং স্ক্রিনের নিচে পোল আইকনে ক্লিক করতে হবে। এরপর, পপ-আপ থেকে কুইজ মোড চালু করতে হবে, প্রশ্ন ও সম্ভাব্য উত্তরগুলো যোগ করতে হবে এবং কেন উত্তরটি সঠিক তার সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা যোগ করতে হবে। সবশেষে, সঠিক উত্তর নির্বাচন করে ক্রিয়েট ক্লিক করতে হবে। 
 
কমিউনিটি ও গ্রুপ চ্যাটে কুইজটি লাইভ হলে অন্যান্য ব্যবহারকারী বাকি অংশগ্রহণকারীদের প্রদানকৃত ব্যাখ্যাসহ সঠিক উত্তরগুলো দেখতে পাবেন। একজন অংশগ্রহণকারী তার নিজের উত্তর জমাদানের পরই বাকিদের প্রতিক্রিয়াগুলো দেখতে পাবেন। 

কমিউনিটিতে কুইজে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকের উত্তরগুলো গোপনীয় রাখা হবে, যিনি কুইজ তৈরি করবেন-এটা তার জন্যও প্রযোজ্য হবে। তারা প্রতিটি প্রশ্নের প্রতিক্রিয়াগুলো দেখতে পাবেন। গ্রুপ চ্যাটের ক্ষেত্রে কুইজ তৈরিকারী প্রত্যেক উত্তরদাতার ভোট ট্র্যাক করতে পারবেন।   

জ্ঞানের সীমা অনুধাবনে কিংবা কমিউনিটির সদস্যদের মতামত সম্পর্কে জানতে অথবা নানা বিষয়ে মজার কুইজ তৈরিতে আগ্রহীদের জন্য এটা খুবই কার্যকরী। দেশের যেসব শিক্ষকদের প্রযুক্তি বিষয়ক দক্ষতা কম এবং যারা এখনো কম্পিউটারের নির্দিষ্ট সফটওয়্যার রপ্ত করার চেষ্টা করছেন, তাদের জন্য এ ফিচারটি সহায়ক হিসেবে কাজ করবে। 

রাকুতেন ভাইবারের চিফ গ্রোথ অফিসার আনা জামেনস্কায়া বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে বিশ্বজুড়ে লকডাউনের কারণে গত শিক্ষাবর্ষের শেষে শিক্ষণ প্রক্রিয়ার রাতারাতি ডিজিটালকরণ ঘটে। কয়েক দিনের মধ্যেই পুরো শিক্ষা কার্যক্রম শ্রেণিকক্ষ থেকে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের বাসায় স্থানান্তরিত হয়েছিল। এ পরিস্থিতিতে পুরো শিক্ষাকার্যক্রম সচল রাখতে শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষার্থে অনেক ভাইবার কমিউনিটি তৈরি হয়েছে। বিশ্বব্যাপী গত বছরের একই সময়ের তুলনায় বর্তমানে ভাইবার কমিউনিটিতে গ্রাহক সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে, যা এ প্রতিকূল সময়ে ভারসাম্য আনতে ভাইবারের কার্যকারিতাকেই প্রমাণ করে।’ 

গত কয়েক মাস ধরে শিক্ষা কার্যক্রমে সহায়তার অঙ্গীকার হিসেবে ভাইবার বেশ কিছু কার্যকর ফিচার চালু করেছে, যা শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সবার জন্য সহায়ক হবে। এ তালিকায় রয়েছে মিডিয়া গ্যালারির উন্নতি এবং মাই নোটের আসন্ন ফিচার ‘রিমাইন্ডার্স’। 

রিমাইন্ডার্স ব্যবহারকারীদের অ্যাসাইনমেন্ট, প্রজেক্ট ও মিটিংয়ের সময় মনে করিয়ে দিতে সহায়তা করবে। শ্রেণিকক্ষ ও অভিভাবক কমিউনিটি উপভোগ্য করতে জিআইএফ ও স্টিকার রিঅ্যাকশন বেশ কার্যকরী হবে। ব্যস্ত সময়ে দ্রুত ও ব্যক্তিগত উপায়ে সংক্ষিপ্ত বার্তা প্রেরণের জন্য তাৎক্ষণিক ভয়েস ও ভিডিও বার্তা সবসময় অত্যন্ত কার্যকরী।

 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ