প্রাইভেটে যাওয়ার সময় স্কুলছাত্রীকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

ঢাকা
ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ   © প্রতীকী ছবি

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে প্রাইভেট পড়তে যাওয়ার সময়ে সামিয়া ইসলাম কাশফি (১৪) নামে এক স্কুলছাত্রীকে জোরপূর্বক অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া স্কুলছাত্রী সামিয়ার বান্ধবী ফাতেমা আক্তার নিপাকে (১৪) আটকে রাখার অভিযোগ রয়েছে। এই ঘটনায় সামিয়ার মা বাদী হয়ে দু’জনের নাম উল্লেখ্যসহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জনকে আসামী করে ফরিদগঞ্জ থানায় অপহরণের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। 

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- উপজেলার বালিমুড়ার মুচের বাড়ীর হালিম খানের ছেলে শাওন (২৭) এবং ছফি উল্লাহর ছেলে বাহার (৩০)। এছাড়া ভুক্তভোগী সামিয়া ইসলাম কাশফি হাজীগঞ্জের দেশগাঁও জয়নাল আবেদীন উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। 

মামলার এজাহারের বরাতে পুলিশ জানিয়েছে, সকালে প্রাইভেট পড়ার উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয় সামিয়া। পরে সামিয়া প্রথমে তার বান্ধবী নিপার বাড়িতে যায়। তারপর দু’জনে একই সঙ্গে প্রাইভেটে রওনা হন। বাড়ির রাস্তা থেকে পাকা রাস্তায় ওঠার সঙ্গে সঙ্গেই সামিয়ার মুখ চেপে ধরেন অভিযুক্ত শাওন এবং পাজাকোলে করে জোরপূর্বক সামিয়াকে সিএনজি তুলে নিয়ে যায় অভিযুক্ত শাওন।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, এসময় সামিয়ার বান্ধবী নিপার মুখ চেপে ধরে রাখে অভিযুক্ত শাওনের সঙ্গে থাকা বাহারসহ দু’জন এবং নিপাকে আধঘণ্টার মতো সেখান থেকে বাড়ি যেতে দেননি তারা। এই সময়ে সিএনজিতে করে সামিয়াকে নিয়ে নিরাপদ স্থানে চলে যায় দুর্বৃত্তরা।

এদিকে মামলা করায় মেয়েপক্ষের কয়েকজন দুই দফায় একটি চক্রের হাতে মারধরের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দোষীদের গ্রেফতার ও ভুক্তভোগী কাশফির উদ্ধার দাবি জানিয়ে মানববন্ধন করেছেন দেশগাঁও জয়নাল আবেদীন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক বরকত উল্লাহ জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।  


x

সর্বশেষ সংবাদ