প্রযুক্তির অপব্যবহারের শিকার নিহত স্কুলছাত্রী: মহিলা পরিষদ

জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন
মহিলা পরিষদের সংবাদ সম্মেলন  © সংগৃহীত

রাজধানীর কলাবাগানে ও-লেভেলের এক ছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ। জাতীয় প্রেসক্লাবে বুধবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এ দাবি জানান।

মহিলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘প্রযুক্তির অপব্যবহারের শিকার ওই স্কুলছাত্রী। এর ফলে শিশু ও কিশোরী ধর্ষণ ক্রমাগত বাড়ছে। নতুন বছরের শুরুতে আমরা এক স্কুলছাত্রীকে হারালাম। এ ঘটনার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত করে মূল অভিযুক্ত দিহানের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা জরুরি।’

এসময় আরো বক্তব্য দেন মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সীমা মোসলেম, লিগ্যাল এইড সম্পাদক শামীমা আফরোজ, ঢাকা মহানগরের আন্দোলন সম্পাদক জেবুন্নেসা, নিহত ছাত্রীর বাবা-মা প্রমুখ।

এর আগে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও জড়িতের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বিবৃতি দেয় সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি। এ কমিটির সঙ্গে জড়িত ৬৭টি নারী, মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠন।

গত ৭ জানুয়ারি নোট নিয়ে আসার কথা বলে ওই ছাত্রী তার বন্ধুর বাসায় যায়। সেখানে তাদের শারীরিক সম্পর্কের একপর্যায়ে রক্তক্ষরণ হলে তাকে হাসপাতালে নেয় তার বন্ধু দিহান। তবে হাসপাতালে নেওয়ার আগেই অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয় বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। ওই ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, তাকে ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশও এর প্রমাণ পাওয়ার কথা জানিয়েছে।


মন্তব্য