আধুনিকায়নের মাধ্যমে পাটকল চালুর দাবি শ্রমিকদের

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সংগ্রাম পরিষদের আয়োজনে মানববন্ধন ও সমাবেশ
জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সংগ্রাম পরিষদের আয়োজনে মানববন্ধন ও সমাবেশ  © সংগৃহীত

আধুনিকায়নের মাধ্যমে বন্ধ সরকারি পাটকলগুলো চালুর দাবি জানিয়েছে পাট-সুতা-বস্ত্রকল শ্রমিক কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ।

শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সংগ্রাম পরিষদের আয়োজনে এক মানববন্ধন ও সমাবেশে বক্তারা এই দাবি জানান।

সমাবেশে শ্রমিকনেতা সহিদুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের পাট ও পাটশিল্পের সম্ভবনা নস্যাতের ষড়যন্ত্র চলছে। এই ষড়যন্ত্র রুখে দিতে হবে।

পাটকল শ্রমিকের সব পাওনা পরিশোধ ও পাটশিল্প আধুনিকায়ন করার দাবি জানান তিনি।

পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিল করার দাবি ছাড়াও সেগুলো পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপে (পিপিপি) চালু এবং বেসরকারি খাতে লিজ দেওয়ার বিষয়ে সরকারের উদ্যোগের বিরোধিতা করা হয় সমাবেশে।

এছাড়া ব্যক্তি মালিকানার জুট ও টেক্সটাইল শিল্প খাতের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা ও বাস্তাবায়ন, তিনমাস কর্মরত শ্রমিকদের আইন অনুযায়ী স্থায়ী করা এবং এই খাতে অনিয়ম বন্ধের দাবি জানান বক্তারা।

তারা বলেন, পাটশিল্প শুধু অর্থনীতিই নয়; এটি বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অস্তিত্বের সঙ্গে জড়িত। এরকম একটি শিল্প চোখের সামনে ধ্বংস হয়ে যাবে, তা হতে দেওয়া যায় না।

সহিদুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে সমাবেশে পাট-সুতা-বস্ত্রকল শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. মছিউদদ্দৌলা, যুগ্ম আহ্বায়ক লুৎফর রহমান অনেকে বক্তব্য দেন।

সমাবেশে সংগ্রাম পরিষদের পক্ষ থেকে একটি দাবিনামা তুলে ধরা হয়। তাদির মধ্যে রয়েছে- (১) বিশ্বব্যাপী পাট ও পাট শিল্পের সম্ভাবনা নস্যাতের ষড়যন্ত্র রুখে দাঁড়ান। অবিলম্বে পাট-সুতা-বস্ত্রকলের শ্রমিকদের সমুদয় পাওনা পরিশোধ কর (২) রাষ্ট্রীয় পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিল কর। পিপিপি বা লিজ নয়, আধুনিকায়নের মাধ্যমে করে রাষ্ট্রীয়ত্ত ও পুনঃ অধিগ্রহণকৃত পাট, সুতা, বস্ত্রকল চালু কর (৩) ১২০০ কোটি টাকা বিনিযোগকরে আধুনিকায়ণ করার মাধ্যমে দেশীয় পাটশিল্প ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা কর (৪) ব্যক্তি মালিকানা নির্বিশেষে জুট ও টেক্সটাইল শিল্প সেক্টরের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা ও বাস্তবায়ন করতে হবে (৫) সুনির্দিষ্ট পদে একটানা তিন মাস কর্মরত শ্রমিকদের শ্রম আইনের ধারা ৪(৮) অনুযায়ী স্থায়ী শ্রমিক হিসেবে গণ্য করে সুযোগ-সুবিধা প্রদান করতে হবে (৬) পাটখাত ধ্বংস, দুনীতি লুটপাটের সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি চাই।

সমাবেশে আগামী ১৮ নভেম্বর পাটকল শিল্প এলাকায় পদযাত্রার কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। দাবি আদায়ে ওইদিন পাট শিল্প এলাকায় জনসংযোগ, প্রচারপত্র বিলি, কর্মী সভা, সমাবেশ, মিছিলের কর্মসূচি দেওয়া হয়।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ