‘বলছি না ঢাবিতে সরাসরি ভর্তি নিতে হবে, আমরা অংশগ্রহণের সুযোগ চাই’

‘বলছি না ঢাবিতে সরাসরি ভর্তি নিতে হবে, আমরা অংশগ্রহণের সুযোগ চাই’
ভর্তিচ্ছুদের সংহতি সমাবেশ  © টিডিসি ফটো

পূর্বের মানদণ্ড অনুযায়ী জিপিএ বহাল রেখে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ এবং গুচ্ছ পরীক্ষায় প্রাথমিক বাছাই পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে সংহতি সমাবেশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা। পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে ‘২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী’র ব্যানারে এই সমাবেশের আয়োজন করেন তারা।

সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ন্যূনতম জিপিএ বৃদ্ধি করার কারণে লাখ লাখ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারছেন না। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তের কারণে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের বৃহৎ অংশ এবং আমাদের অনেকের পরিবার হতাশ হয়ে পড়েছে।

শিক্ষার্থীরা আরো বলেন, আমরা বলছি না যে, আমাদেরকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি ভর্তি নিতে হবে। আমরা শুধুমাত্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ চাই। এ সময় তারা ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের ন্যূনতম জিপিএ বৃদ্ধি না করে পূর্বের জিপিএ বহাল রাখার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান।

সমাবেশ শেষে ভর্তিচ্ছুরা একটি মিছিল বের করেন। মিছিলটি শাহবাগ থেকে শুরু হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যে এসে শেষ হয়।

সিলেটের মদন মোহন কলেজের শিক্ষার্থী এবং ভর্তিচ্ছুদের মুখপাত্র সানোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, নারায়নগঞ্জের সরকারি তোলারাম কলেজে শিক্ষার্থী মো. তানজিম, আবু সাঈদ, গাইবান্ধা কলেজের জাকির, কুমিলার দোল্লাই নওয়াবপুর কলেজের গাজী আরমান, নোয়াখালীর মাইজদী কলেজের দাঊদসহ প্রমুখ ভর্তিচ্ছু। এছাড়া শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. হারুন-অর-রশিদ, ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক দিলীপ রায়, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের (বাসদ-মার্কসবাদী) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সালমান সিদ্দিকী, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের সহ-সভাপতি সাঈয়েদ উল নিশানসহ আরো অনেকে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ( ঢাবি) নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে উপাচার্য আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি বিষয়ক সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় এবারের ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার মানদণ্ড বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই সিদ্ধান্তের পর থেকেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্বের মানদণ্ডে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা এবং গুচ্ছ পদ্ধতিতে প্রাথমিক বাছাই পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন ভর্তিচ্ছুরা।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ