ডেকে নিয়ে দুই মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ করল কথিত প্রেমিকরা

ডেকে নিয়ে দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করল কথিত প্রেমিকরা
দুই মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ করল কথিত প্রেমিকরা   © ফাইল ছবি

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় কথিত প্রেমিকদের দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়েছে মাদ্রাসা পড়ুয়া দুই শিক্ষার্থী। গত রোববার (৭ নভেম্বর) ঘটা এ ঘটনার পরে আজ মঙ্গলবার দুপুরে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগীরা।

আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, দুই ‘বন্ধু’ ভিকটিম মেয়েদের ধর্ষণ করেছে বলে মামলা হয়েছে। তারা চারজনই অপ্রাপ্তবয়স্ক। থানায় অভিযোগ গ্রহণ শেষে তাদের ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন- আলমডাঙ্গা উপজেলার ওসমানপুর গ্রামের ইয়াকিন আলীর ছেলে আশিক (১৭) ও তার বন্ধু একই গ্রামের আনারুল ইসলামের ছেলে নিশান (১৭)।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, দুই বান্ধবীর সাথে অভিযুক্ত আশিক ও নিশানের পরিচয় হয় মাস চারেক আগে। সেই থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ৭ নভেম্বর রাতে নিশান মোবাইল ফোনে দুই বান্ধবীকে বাড়ির বাইরে ডেকে নেয়। তারা বাইরে বের হলে নিশান তাদের মোটরসাইকেলে উঠিয়ে উপজেলার হারদী মাঠের নির্জন একটি স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছিল নিশানের বন্ধু আশিক।

পুলিশ জানিয়েছে, পরে অভিযুক্ত দুই বন্ধু বিয়ের মিথ্যে আশ্বাস দিয়ে তাদের নিজ নিজ প্রেমিকাকে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে। পরে গভীর রাতে দুই বান্ধবীকে তাদের বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছে দিয়ে দ্রুত সেখান থেকে চলে যায় অভিযুক্ত নিশান। প্রতারিত হয়েছে বুঝতে পেরে ঘটনার দুই দিন পর মঙ্গলবার ওই দুই বান্ধবী আলমডাঙ্গা থানায় তাদের নিজ নিজ কথিত প্রেমিকের নামে ধর্ষণ মামলা করে।

আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) এ এস এম ফাতেহ্ আকরাম জানান, দুপুরে দুই ভিকটিমের ধর্ষণের আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। বুধবার তাদের বয়স নির্ধারণের জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার করা হবে। 


x

সর্বশেষ সংবাদ