পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যমিকে ৭শ’ তে ৬৯৭ পেয়ে প্রথম ৭৯ জন

পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যমিকে ৭শ’ তে ৬৯৭ পেয়ে প্রথম ৭৯ জন
পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যমিকে ৭শ’ তে ৬৯৭ পেয়ে প্রথম ৭৯ জন  © সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশসহ অনেক দেশে শিক্ষার্থীদের ‘অটোপাস’ দেয়া হয়েছে। এবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গেও দেখা গেল একই ঘটনা। পরীক্ষা ছাড়াই বিকল্প মূল্যায়ন পদ্ধতির উপর ভিত্তি করে দেওয়া হয়েছে ২০২১ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল। এতে পাসের হার শতভাগ।

মঙ্গলবার (২০ জুলাই) সাংবাদিক সম্মেলন করে ফলাফল ঘোষণা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মাধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়।

চলতি বছর মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১০ লাখ ৭৯ হাজার ৭৪৯ জন। ছাত্রদের তুলনায় ছাত্রীদের সংখ্যা বেশি। পাশ করেছে সকলেই, অর্থাৎ পাশের হার ১০০ শতাংশ। গত বছর তা ছিল ৮৬.৩৪ শতাংশ। মেধাতালিকা প্রকাশিত না হলেও পর্ষদ সূত্রে খবর, এ বছর ৭০০’র মধ্যে ৬৯৭ পেয়েছেন মোট ৭৯ জন পরীক্ষার্থী।

পড়ুন: ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে কলকাতার কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি

এ বছর ফলাফলে ফার্স্ট ডিভিশনে পাশ করেছেন ৯০ শতাংশ শিক্ষার্থী। এ বছর মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১০,৭৯,৭৪৯ জন।

চলতি বছরের ফলাফলে কোন অনুর্ত্তীর্ণ শিক্ষার্থী নেই। পর্ষদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, যদি পরীক্ষার ফলাফলে কারও অপছন্দ কিছু থাকে, তাহলে তারা ফের একবার পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে। স্কুলে মার্কশিট নেয়ার সময় শিক্ষার্থীদের করোনাভাইরাসের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

করোনা আবহে এ বছর বাতিল করতে হয়েছে পরীক্ষা। নবম শ্রেণির ফাইনাল পরীক্ষার ফলাফল এবং দশমের ইন্টারনাল অ্যাসেসমেন্টের ভিত্তিতে মাধ্যমিকের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। তাই মেধাতালিকা প্রকাশ করা হলো না এ বছর।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ