গ্রিন ইউনিভার্সিটির ২৫০ শিক্ষার্থী পেল ভিসি ও ডিনস সনদ

 সার্টিফিকেট
জুমে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই সার্টিফিকেট দেওয়া হয়  © সংগৃহীত

একডেমিক পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফল অর্জন করায় গ্রিন ইউনিভার্সিটির ২৫০ শিক্ষার্থীকে ভিসি ও ডিনস সার্টিফিকেট দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার (১১ মে) অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে স্প্রিং-২০২১ সেমিস্টারের জন্য এই সার্টিফিকেট দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকিরের সভাপতিত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ ফরহাদ আনোয়ার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফায়জুর রহমান, বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. সাইফুল আজাদ, আইন এবং কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. ফারহানা হেলাল মেহতাব, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ তারেক আজিজ ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ ফরহাদ আনোয়ার প্রধান বলেন, একাডেমিক শিক্ষা নিঃসন্দেহে বড় অর্জন। তবে এর চেয়েও বড় হলো সততা। কারণ, সততা ছাড়া সফলতা মূল্যহীন। একাডেমিক এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড শিক্ষার্থীদের আরো এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, শুধু একাডেমিক ক্ষেত্রে নয়, জীবনের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে কৃতিত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে হবে। একুশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জে মোকাবিলায় যোগ্যতা ও দক্ষতা দিয়ে সর্বক্ষেত্রে নিজেকে প্রাসঙ্গিক করে তোলার আহŸান জানান উপাচার্য।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, একাডেমিক ডিগ্রির পাশাপাশি সব ধরনের কার্যক্রমে পারদর্শী হতে হবে। এ সময় তিনি প্রযুক্তির শিক্ষার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

প্রসঙ্গত, মোট ২৫০ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১১৯ ছাত্র-ছাত্রী ভিসি এবং ১৩১ জনকে ডিনস সার্টিফিকেট পান। পরীক্ষার ফলে শিক্ষার্থীরা জিপিএ-৩.৯০ থেকে ৪.০০ পেলে ভিসি সার্টিফিকেট এবং জিপিএ-৩.৮০ থেকে ৩.৮৯ অর্জন করলে ডিনস সার্টিফিকেট লাভ করে থাকেন।


x

সর্বশেষ সংবাদ