নিহত ১১ জনের সবাই শিক্ষক-শিক্ষার্থী

মাইক্রোবাস
দুর্ঘটনার কবলে পড়া মাইক্রোবাস  © সংগৃহীত

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে লেভেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসের ১১ আরোহী নিহত হয়েছেন। তারা সবাই একটি কোচিংয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) বেলা দেড়টার দিকে মিরসরাই উপজেলার বড়তাকিয়া রেল স্টেশনে মহানগর প্রভাতি ট্রেনের সঙ্গে পর্যটকবাহী মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে এই ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের চিত্তবিনোদনের জন্য শিক্ষার্থীদের নিয়ে পিকনিকের আয়োজন করেছিল কোচিং সেন্টারটি। এজন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৫০০ টাকা করে চাঁদা নেওয়া হয়েছি। শিক্ষার্থী, শিক্ষক এবং চালক ও হেল্পারসহ মাইক্রোবাসটিতে মোট ১৮ জন আরোহী ছিলেন।

আরও পড়ুন: পরীক্ষার আগে ‘চিত্ত-বিনোদন’ করতে বের হয়েছিলেন তারা

মাইক্রোবাসে থাকাদের মধ্যে জিসান, সজিব, রাকিব ও রিদওয়ান কোচিং সেন্টারের শিক্ষক। ৫ জন জোগিরহাট জিয়াউর রহমান কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী, ৬ জন নজুমিয়া হাইস্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী। বাকি ২ চালক ও হেলপার।

জানতে চাইলে মিরসরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন বলেন, মাইক্রোবাসের আরোহীরা খৈয়াছড়া ঝরনা দেখে ফেরার সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী মহানগর প্রভাতীর ধাক্কায় ১১ জন ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আনসার আলী জানান, মহানগর প্রভাতী ট্রেনটি বড়তাকিয়া ক্রস করার সময় লাইনে ওঠে যায় মাইক্রোবাস। এ সময় ট্রেনের ধাক্কায় মাইক্রোবাসটি কিছু দূর চলে যায়। লেভেলক্রসিংয়ের বাঁশ ঠেলে মাইক্রোবাস লাইনে উঠলে দুর্ঘটনাটি ঘটে।


x

সর্বশেষ সংবাদ