খেলার মাঠে ভবন নির্মাণের প্রতিবাদ করায় মা-ছেলে আটক

খেলার মাঠে ভবন নির্মাণের প্রতিবাদ করায় মা-ছেলে আটক
খেলার মাঠে ভবন নির্মাণের প্রতিবাদ করায় মা-ছেলে আটক  © সংগৃহীত

রাজধানীর কলাবাগানের তেঁতুলতলা মাঠ রক্ষা আন্দোলনের সংগঠক সৈয়দা রত্নার ও তাঁর ছেলে মোহাম্মদ ঈসা আবদুল্লাহকে আটক করেছে পুলিশ। রবিবার (২৪ এপ্রিল) সকালে তেঁতুলতলা মাঠ থেকে তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পুলিশ বলছে, সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় দুজনকে আটক করা হয়েছে।

এদিন সকালে পুলিশের একটি দল তেঁতুলতলা মাঠ নামে পরিচিত একটি মাঠে নির্মাণ কাজ শুরু করে। বছর-খানেক যাবত এই মাঠটিতে থানা-ভবন না তোলার জন্য এলাকাভিত্তিক একটি আন্দোলন চলছিল। পুলিশ নির্মাণ কাজ শুরু করলে সৈয়দা রত্না সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটি লাইভ করছিলেন।

এক মিনিট ৩২ সেকেন্ডের ওই লাইভটি চলার এক মিনিট দুই সেকেন্ডের সময় ডোরাকাটা গেঞ্জি পরা একজন ব্যক্তি সৈয়দা রত্নাকে ধমকাতে শুরু করেন। লাইভ বন্ধ করতে বলে শুরু হওয়া ধমকের সাথে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে যোগ দেন আরো কয়েকজন। এক পর্যায়ে ফোনটি কেড়ে নেয়ার এবং লাইভটি বন্ধের শব্দ পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন: নিয়োগ পরীক্ষায় প্রক্সি দিতে গিয়ে আটক ববি শিক্ষার্থী

সৈয়দা রত্নার মেয়ে শেউঁতি শাহগুফতা রবিবার সন্ধ্যায় গণমাধ্যমকে বলেন, তাঁর মায়ের সঙ্গে তাঁকে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। তিনি বলেন, সকাল ১১টার দিকে আটক করে নিয়ে তাঁর মাকে প্রথমে থানার হাজতখানায় রাখা হয়েছিল। পরে মা সেখানে খারাপ লাগার কথা বললে তাঁকে থানার একটি কক্ষে এনে আটকে রাখা হয়েছে।

কলাবাগানের স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, তেঁতুলতলা মাঠের এক বিঘা জমি একজন বিহারির মালিকানায় ছিল। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতাযুদ্ধের পর তিনি আর দেশে ফেরেননি। সেই জায়গাটিতে স্থানীয় শিশু-কিশোররা খেলাধুলা করত।

সরকারি খাসজমি হিসেবে নথিভুক্ত এই ফাঁকা জায়গাটিতে থানা করতে বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। এরপর থেকেই সেই জায়গাটি খেলাধুলার জন্য ফাঁকা রাখার দাবি উঠেছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নিউমার্কেট-কলাবাগান জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার শরীফ মোহাম্মদ ফারুকুজ্জামান বলেন, সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে সৈয়দা রত্না ও তার ছেলে ঈসা আব্দুল্লাহকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। আমি থানায় যাবো, এরপর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


x

সর্বশেষ সংবাদ