ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণ দাবি, আলটিমেটাম ঘোষণা

ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণ দাবি, আলটিমেটাম ঘোষণা
ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণ দাবি, আলটিমেটাম ঘোষণা  © সংগৃহীত

ইবতেদায়ী মাদ্রাসাগুলো জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক ঐক্যজোট। আগামী মার্চের মধ্যে দাবি না মানলে ১০ এপ্রিল থেকে অবস্থান ধর্মঘটসহ কঠোর কর্মসূচি পালন করার হুশিয়ারি দেন জোটের নেতারা।

আজ বুধবার (১২ জানুয়ারি) সকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন: সাড়ে ৭ হাজার ইবতেদায়ী মাদ্রাসা এমপিওভুক্তির দাবি

মানববন্ধনে ঐক্যজোটের সদস্যসচিব তাজুল ইসলাম ফরাজী বলেন, আমাদের দাবির বিষয়টি সব মহল স্বীকার করে। কিন্তু এই ন্যায্য দাবি আদায় হচ্ছে না কেন, তা আমরা জানতে চাই। শিক্ষামন্ত্রী যেখানে প্রস্তাব দিয়েছেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী সেই প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছেন। এর পরেও ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষকদের বেতন পাওয়ায় বাধা কোথায়?

আরও পড়ুন: এমপিওভুক্ত করা হচ্ছে ৪৩১২ ইবতেদায়ী মাদ্রাসা

ইবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষকদের আর্থিক অনটনের তুলে ধরে, প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসাগুলোকে আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে জাতীয়করণ বা এমপিওকরণের দাবি জানান। দাবি না মানলে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারী দেন তিনি।

মানববন্ধন থেকে ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণসহ ৮ দফা দাবি জানান শিক্ষকনেতারা। দাবিগুলো হলো- স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার ডেটাবেইস চূড়ান্ত করা; স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার পাঠদানের অনুমতির স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করা; রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত কোডবিহীন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসাগুলো মাদ্রাসা বোর্ডের কোডের অন্তর্ভুক্ত করা; প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির ব্যবস্থা করা; প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসায় একজন অফিস সহায়কের পদ সৃষ্টি করা এবং স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসার পঞ্চম শ্রেণি সমাপনী পরীক্ষার অটো পাসের প্রজ্ঞাপন জারি করা।

আরও পড়ুন: স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণ করা হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান, সমন্বয়ক কাজী ফয়েজুর রহমান, মুখপাত্র এস এম জয়নুল আবেদীন জেহাদী, শামছুল আলম, যুগ্ম-সচিব আব্দুস ছত্তার প্রমুখসহ বিভিন্ন জেলা থেকে তিন শতাধিক শিক্ষক অংশ নেন।


মন্তব্য

x