মিতু হত্যায় স্বামী সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেপ্তার

বাবুল ও মিতু
বাবুল আক্তার ও নিহত মিতু  © ফাইল ফটো

চট্টগ্রামের বহুল আলোচিত মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলায় তার স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে অবশেষে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। দুপুরে চট্টগ্রামের মনসুরাবাদ পিবিআই চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমাসহ পিবিআইয়ের উর্ধ্বতনরা বাবুলকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। 

পিবিআইয়ের প্রধান (ডিআইজি) বনজ কুমার মজুমদার মঙ্গলবার বলেন, 'তিনি (বাবুল) আগেও এসেছিলেন। আজকেও পিবিআইতে গেছেন। মামলার বাদী হিসেবে উনাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। হাইকোর্টের রুলিং আছে, এর চেয়ে বেশি কিছু বলা যাবে না।'

ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে গিয়ে ২০১৬ সালের ৫ জুন চট্টগ্রাম নগরের জিইসি মোড়ের কাছে ওআর নিজাম রোডে হত্যার শিকার হন মাহমুদা খানম মিতু। তাকে ছুরিকাঘাত ও গুলি করা হয়। এ ঘটনায় বাবুল আক্তার অজ্ঞাতপরিচয় তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেন।

প্রথমে ধারণা করা হয়েছিল, জঙ্গিরা এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। তার স্বামী বাবুল আক্তার যেহেতু জঙ্গিবিরোধী অপারেশনে পুলিশের প্রথম সারির একজন কর্মকর্তা ছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে বাবুল আক্তার ও মিতুর পরকীয়ার বিষয়টিও আলোচিত হয়। তবে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে পুলিশ এসবের কোনো যোগসূত্র পায়নি। বছরখানেক পর থেকেই মিতুর বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেন দাবি করেন, বাবুল আক্তারের পরিকল্পনায় ও নির্দেশে তার মেয়ে মিতুকে খুন করা হয়েছে।


মন্তব্য