নকশী পিঠা নিয়ে ঢাবি ছাত্রীর উদ্যোক্তার পথচলা

নকশী পিঠা নিয়ে ঢাবি ছাত্রীর উদ্যোক্তার পথচলা
  © টিডিসি ফটো

বাঙালীর লোক ইতিহাস-ঐতিহ্যে পিঠা-পুলি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে বহুকাল ধরে। এটি লোকজ ও নান্দনিক সংস্কৃতিরই বহিঃপ্রকাশ। মুখরোচক খাদ্য হিসেবে বাঙালী সমাজে বিশেষ আদরণীয়। এছাড়াও, আত্মীয়-স্বজন ও মানুষে-মানুষের পারস্পরিক সম্পর্কের বন্ধনকে আরো দৃঢ় করে।

নরসিংদীর ঐতিহ্যবাহী খাবারগুলাের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ‘নকশী পিঠা’। দেখতে যেমন চমৎকার খেতেও তার চেয়ে বেশি সুস্বাদু। ঐতিহ্যবাহী এই পিঠা সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে কাজ করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ৪র্থ বর্ষের ছাত্রী কাজী জুঁই। ঘরে বসেই নিতে পারবেন হরেক রকম নরসিংদীর ঐতিহ্যবাহী নকশী পিঠার স্বাদ।

উদ্যোক্তা হওয়ার আগ্রহ কিভাবে তৈরি হলো— এই প্রশ্নের জবাবে জুঁই জানান, বরাবরই কিছু না কিছু করার ইচ্ছা ছিলো যা সবাইকে চমকে দিবে। যাতে নিজের একটা পরিচয় হবে। এই চিন্তা থেকেই উদ্যোক্তা হওয়ার পথ চলা।

করোনার প্রদুর্ভারের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় দেশের বাড়িতেই অবস্থান করছেন অধিকাংশ শিক্ষার্থী। এর থেকে ব্যতিক্রম নন ঢাবি ছাত্র জুঁই। তবে বসে বসে অলস সময় পার করতে রাজি নন তিনি। এজন্য বেশকিছু দিন অনলাইন বিজনেস নিয়ে বেশ স্টাডি করেন তিনি।

তিনি জানান, গত ৭ সেপ্টেম্বর থেকে নকশী নীড় নামক ফেসবুক পেজ থেকে শুরু করেন ই-কমার্স প্লাটফর্ম। এখান থেকে নরসিংদীর ঐতিহ্যবাহী নকশী পিঠা নিয়ে কাজ করছি। যদিও মনে লালন-পালন করেছি আরও তিনমাস আগেই। এসময় অনলাইন বিজনেস নিয়ে বেশ স্টাডি করেছি।

মাত্র ৭০০ টাকার পুঁজি নিয়ে ব্যবসা শুরু করেন জুঁই। এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে কয়েক হাজার টাকা পণ্য বিক্রি করা হয়েছে। ‘নরসিংদীর ঐতিহ্যবাহী অনেক নকশী পিঠা হারিয়ে যাচ্ছে। থাকলেও গ্রামীণ পর্যায়ে আছে। সেসব সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে চেষ্টা করছি-জানান জুঁই।’

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হিসেবে হিসেবে জুঁই জানান, নকশী নীড়কে অনেক বড় করতে চাই। ঐতিহ্যবাহী নকশী পিঠার একটা বিশ্বাসযোগ্য আশ্রয়স্থলে পরিণত করতে চাই। দেশের এই ঐতিহ্যকে দেশসহ দেশের বাহিরেও ছড়িয়ে দিতে চেষ্টা করব।

প্রতিকূলতাকে জয় করে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার ভূমিকায় নিজেদের দাঁড় করিয়েছেন অনেক শিক্ষার্থী। তাদের উদ্দেশ্যে জুঁই বলেন, শখের বসে পেজ খুলে ব্যবসায় নামবেন না, আগে নিজের পণ্য নিয়ে স্টাডি করুন দেন শুরু করুন।

ব্যবসায় নেমে বাঁধা নয়, বরং সবার কাছ থেকে উৎসাহ পেয়েছেন তিনি। তার মতে, শুরু থেকে পরিবারের সকল সদস্য আমাকে সম্পূর্ণ সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছে। মা-বাবা, ভাইসহ বাড়ির পিচ্চিটা পর্যন্ত এই ব্যবসা নিয়ে সমান এক্সাইটেড।

নকশী নীড় থেকে নরসিংদীর ঐতিহ্যবাহী যেসব নকশী পিঠার স্বাদ পাবেন:
১) জামাই পিঠা
২) বউ পিঠা (আমার উদ্ভাবন)
৩) ঝিনুক
৪) গোলাপ পিঠা
৫) ফুলঝুরি
৫) বাসন্তী
৭) মুগ পাকন
৮) পাকন
৯) বিস্কুট পিঠা
১০) চ্যাপা শুটকির বড়া (এটা কোন পিঠা না)


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ