ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি ঠেকাতে ববিতে ‘ইলেকট্রিক জ্যামার’

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি)
  © ফাইল ফটো

বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় (ববি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষের ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্রকরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ডিজিটাল ডিভাইসের অপব্যবহার রোধে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রসহ বাইরের কেন্দ্রগুলোতে ‘ইলেকট্রনিক জ্যামা’র স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে একথা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ছাদেকুল আরেফিন।

উপাচার্য প্রফেসর ড. ছাদেকুল আরেফিন বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি এবং অসদুপায় অবলম্বন একটি আলোচিত বিষয়। এ বিষয়টি সামনে রেখে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় অবৈধ পরীক্ষার্থী শনাক্তকরণ এবং সব ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইসের ব্যবহার রোধকল্পে পরীক্ষার্থীদের মুখ ও কান অনাবৃত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোন এবং ক্যালকুলেটরসহ যেকোনো ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস রাখা যাবে না। এছাড়া ভর্তি পরীক্ষা নির্বিঘ্নভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে দু’জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ টিম দায়িত্বরত থাকবে।

দেরিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ায় কোন সেশন জটের আশঙ্কা আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে উপাচার্য আশ্বস্ত করে বলে বলেন, পরীক্ষা বিলম্বে শুরু হলেও সেশনজটের কোনো শঙ্কা নেই। ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা এবং জানুয়ারি মাসের শেষের দিকে ক্লাস শুরুর পরিকল্পনা রয়েছে। ভর্তি পরীক্ষার সব প্রস্তুতিই নতুন করে নেওয়া হয়েছে।

আগামী ২৭ ও ২৮ ডিসেম্বর দুই দিনব্যাপী বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এবার ৬টি অনুষদের অধীন ২৪ বিভাগের ১৪৪০টি আসনের বিপরীতে ৪৯ হাজার ৯৫৬ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন। প্রতিটি আসনের বিপরীতে প্রতিযোগী প্রায় ৩৫।

আগামীকাল শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসসহ নগরের সরকারি বরিশাল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, আলেকান্দা সরকারি কলেজ, অমৃত লাল দে মহাবিদ্যালয় ও বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে ‘গ’ ইউনিটে ৩শ’ আসনের বিপরীতে ৬ হাজার ১২ জন আবেদনকারী রয়েছেন। শুক্রবার বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসসহ নগরের শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে।

অপরদিকে ‘ক’ ইউনিটে ৫৮০টি আসনের বিপরীতে ২০ হাজার ৫৬৭ জন আবেদনকারী রয়েছেন। শনিবার (২৮ ডিসেম্বর) বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসসহ শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, বেগম তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া মহিলা কলেজ, শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, বরিশাল সরকারি বালিকা উচ্চে বিদ্যালয়, ওয়াহেদ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, আলেকান্দা সরকারি কলেজ, বরিশাল টেকনিক্যাল স্কুল ও কলেজ, হালিমা খাতুন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, অমৃত লাল দে মহাবিদ্যালয়, বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ এবং সরকারি বরিশাল কলেজে অনুষ্ঠিত হবে।এছাড়া, ভর্তি পরীক্ষায় শাখা পরিবর্তনে আবেদনকারী ১৩ হাজার ২৭১ জন রয়েছেন।

দেখুন: ববির স্থগিত ভর্তি পরীক্ষা শুরু শুক্রবার

ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণে ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্রসহ (ডাউনলোড করা) পরীক্ষার হলে প্রবেশ, পরীক্ষার শৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যসহ এসএসসি অথবা এইচএসসির রেজিস্ট্রেশন কার্ডের মূল কপি সঙ্গে রাখতে হবে। এ সংক্রান্ত নির্দেশনা মেনে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার হলে প্রবেশ করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে। ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্যাদি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে (http://admission.eis.bu.ac.bd, www.bu.ac.bd) পাওয়া যাবে।


মন্তব্য