এইচএসসির ফল প্রকাশে বাধা কাটল

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি  © ফাইল ফটো

চলতি বছর বিশেষ ব্যবস্থায় এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বোর্ড আইনের সংশোধনীর প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ। আজ সোমবার (১১ জানুয়ারি) শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন। এখন রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ জারি করলে প্রধানমন্ত্রী ফলাফল প্রকাশের সময় জানাবেন। তারপরই ফলাফল প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে।

এর আগে সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী। বৈঠকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড আইন সংশোধনের জন্য উত্থাপন করা হয়।

২৮ জানুয়ারির মধ্যে এইচএসসির ফলাফল: মন্ত্রিপরিষদ সচিব

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এইচএসসির গ্রেড মূল্যায়ন কমিটির সদস্য সচিব ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ আজ সোমবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ‘এই সংশোধনী প্রস্তাব অনুমোদনের পর বিষয়টি আইন মন্ত্রণালয়ে যাবে। তারা রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের ব্যবস্থা নেবেন। এরপর অধ্যাদেশ জারি হলে এইচএসসির ফল প্রকাশে আর কোনো বাধা থাকবে না।’

আইনের সংশোধনী সংসদে পাস করানোর প্রয়োজন হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এমন অধ্যাদেশ পরে জাতীয় সংসদে এটি পাস করিয়ে নেয়া হয়। রাষ্ট্রপতি তার বিশেষ ক্ষমতাবলে অধ্যাদেশ জারি করতে পারেন।’

করোনার কারণে গত বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। পরীক্ষার পরিবর্তে এবার ফলাফল প্রকাশ করা হবে জেএসসি ও এসএসসি এবং সমমানের পরীক্ষার ফল গড় করে। এভাবে ফল প্রকাশ করতে বিশেষ আইন রয়েছে, জারি করতে হয় অধ্যাদেশ। সেটি অনুমোদনের জন্য আজ সোমবার (১১ জানুয়ারি) মন্ত্রিসভায় উঠানো হয় খসড়া।

এর আগে মন্ত্রিসভার বৈঠকে উত্থাপনের জন্য অধ্যাদেশটির খসড়া মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পাঠায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্র গণমাধ্যমকে জানায়, অধ্যাদেশটি আজ বৈঠকের এজেন্ডায় রাখা হয়েছিল। এদিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বৈঠকে অনুমোদন পাওয়ার পর সেটি অধ্যাদেশ আকারে জারি হবে। এরপর এইচএসসির ফল প্রকাশের কার্যক্রম শুরু হবে।

গত ২৯ ডিসেম্বর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি জানান, বিশেষ পরিস্থিতিতে এইচএসসির ফল প্রকাশ করতে অধ্যাদেশ জারি করতে হবে। এ সংক্রান্ত আইন রয়েছে বলেও জানান তিনি। এবার জেএসসি-জেডিসির ফলকে ২৫ শতাংশ এবং এসএসসির ফলের ৭৫ শতাংশ ধরে এইচএসসির ফলাফল ঘোষিত হবে বলে জানানো হয়েছে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ