কাল সংবাদ সম্মেলনে আসছেন সামিয়া রহমান

কাল সংবাদ সম্মেলনে আসছেন সামিয়া রহমান
  © ফাইল ফটো

গবেষণায় চৌর্যবৃত্তির দায়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সামিয়া রহমানকে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে পদাবনতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্ব্বোচ নীতি নির্ধারণী ফোরাম সিন্ডিকেট।

এরপর থেকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাকে নিয়ে চলছে আলোচনা। সামিয়া রহমানও একাধিক বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন সিদ্ধান্ত ষড়যন্ত্র বলে আদালতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। 

তার লেখার প্লেজারিজমের মূল দলিল হিসেবে তদন্ত কমিটি শিকাগো ইউনিভার্সিটির জার্নাল ‘ক্রিটিক্যাল ইনকোয়ারি’র অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যালেক্স মার্টিন পরিচয় দিয়ে ইউনিভার্সিটি অব শিকাগো প্রেস থেকে চিঠি এসেছে, যার পুরোটাই মিথ্যা। এরকম একটি দলিল সামিয়া রহমানের হাতে আসার পর তিনি এখন বিষয়টি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করতে যাচ্ছেন। আগামীকাল সোমবার (১ মার্চ) দুপুর ১২টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হবেন সামিয়া রহমান।

তিনি বলেন, আমি শিকাগো ইউনিভার্সিটিতে যোগাযোগ করার পর তারা জানিয়েছেন, অ্যালেক্স মার্টিন বলে ওই জার্নালে কেউ নেই এবং তারা এ ধরনের চিঠি পাঠায়নি বলে শিকাগো জার্নালের এডিটর নিজে স্বীকার করেছেন। তাই পুরো ঘটনাটি মিথ্যা। আমাকে ফাঁসানোর জন্য তারা এ ভুয়া চিঠি তৈরি করেছেন।

তিনি আরও বলেন, প্লেজারিজমের সঙ্গে জড়িত থাকার দালিলিক প্রমাণ তদন্ত কমিটি দিতে পারেনি। মিথ্যা ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে আমাকে ফাঁসানো হয়েছে। যে চিঠিই মিথ্যা, সেই চিঠির ভিত্তিতে তদন্ত হলে, সেই তদন্ত অবশ্যই ষড়যন্ত্রের।

সামিয়া রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন কীভাবে আমার বিরুদ্ধে একচেটিয়া তদন্ত করে জোর করে আমাকে দোষী সাব্যস্ত করেছে তার দালিলিক প্রমাণ উপস্থাপন করব সংবাদ সম্মেলনে।

Caption

 


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ