বাবার সাথে পরকীয়া সন্দেহে শাশুড়িকে গলা কেটে হত্যা

ঢাকা
অভিযুক্ত গৃহবধূ   © সংগৃহীত

বরিশালে বাবার সাথে পরকীয়া সন্দেহে শাশুড়িকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক গৃহবধূর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ লাবণ্য আক্তারকে (২০) আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া এই হত্যাকাণ্ডের জন্য ব্যবহৃত একটি ছুরিও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে বাকেরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলাউদ্দিন মিলন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে, বুধবার রাত ১০টায় বাকেরগঞ্জের রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের কাঁঠালিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত গৃহবধূ লাবণ্য কাঁঠালিয়ার উজ্জ্বল হাওলাদারের স্ত্রী ও ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার কুশঙ্গল গ্রামের মো. খলিলের মেয়ে। নিহত শাশুড়ি নাজনীন বেগম কাঁঠালিয়া গ্রামের মৃত হানিফ হাওলাদারের স্ত্রী। 

প্রতিবেশীদের বরাতে পুলিশ জানিয়েছে, উজ্জলের সঙ্গে প্রায় ৩ বছর আগে লাবণ্য’র বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই লাবণ্য নিজের ইচ্ছে মতো চলাফেরা করত। স্বামী উজ্জল ঢাকাতে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করেন। লাবণ্য ও তার শাশুড়ি একসঙ্গে থাকত। উচ্ছৃঙ্খল হওয়ায় স্বামী ও শাশুড়ির সঙ্গে লাবণ্যের সম্পর্ক ভালো ছিল না।

জানা গেছে, উজ্জল ঈদের ছুটিতে বাসাতে আসেন। ঈদের পরদিন স্বামী ও শাশুড়ির সঙ্গে লাবণ্যের ঝগড়া বাঁধে। এতে রাগ করে লাবণ্য বাসা ছেড়ে চলে যায়। ছুটি শেষে ঢাকায় ফেরার আগে স্ত্রী লাবণ্যকে বাসায় রেখে আসেন উজ্জল। বুধবার রাতে ঘরে গিয়ে নাজনীন আক্তারের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পান নাজনীনের ভাসুর কালাম হাওলাদার। 

এ ব্যাপারে কালাম হাওলাদার জানান, রাতে উজ্জল তার মাকে বেশ কয়েকবার ফোন দিয়েছে। কিন্তু কেউ ফোন ধরছিল না। পরে আমাকে ফোন দিয়ে তার মায়ের খোঁজ নিতে বলেন। ঘরে গিয়ে দেখি মরদেহ পড়ে রয়েছে। রক্তে পুরো বিছানা ভেজা। এরপর পুলিশকে জানাই।

আরও পড়ুন : জুতা কিনতে গিয়ে ২৩ লাখ টাকা খোয়ালেন রাবির শিক্ষক

বাকেরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলাউদ্দিন মিলন জানান, নাজনীন বেগমকে গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে। ঘরে নাজনীন ও ছেলে বউ ছিলেন। এ ঘটনায় ছেলের বউকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লাবণ্য জানিয়েছে, তার বাবা মো. খলিলের সঙ্গে শাশুড়ি নাজনীন বেগমের সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি বেশ কয়েকবার তার চোখে পড়েছে। যা লাবণ্য মেনে নিতে পারেননি। এ কারণে শাশুড়িকে হত্যা করেছেন তিনি। 

পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান, মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


x

সর্বশেষ সংবাদ