বাজারে ‘মেসি-নেইমার’, দাম হাঁকা হয়েছে পাঁচ লাখ

বাজারে ‘মেসি-নেইমার’, দাম হাঁকা হয়েছে পাঁচ লাখ
বাজারে ‘মেসি-নেইমার’, দাম হাঁকা হয়েছে পাঁচ লাখ  © সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে রাজস্থান হারিয়ানা জাতের দুটি খাসির নাম রাখা হয়েছে ‘মেসি’ ও ‘নেইমার’। দুই ফুটবল তারকার নামে নামকরণ করায় আলোচনায় রয়েছে ছাগল দুটি। রবিবার উপজেলার গোবিন্দাসী পশুর হাটে তোলা হয়েছে ১৮০ কেজি ওজনের ছাগল দুটিকে।

‘মেসি-নেইমার’কে লালন-পালন করা হয়েছে জেলার ভূঞাপুর উপজেলার যদুরগাতি গ্রামের শাহিনুল ইসলামের খামারে। ‘মেসি-নেইমারের’ ওজন ১৮০ কেজি। কালো রঙের সাড়ে তিন ফুট লম্বা ও প্রায় তিন ফিট উচ্চতার ‘মেসি-নেইমারের’ দাম হাঁকা হয়েছে পাঁচ লাখ টাকা।

খামারি শাহিনুল ইসলাম বলেন, ‘কোরবানির জন্য প্রস্তুত ছাগল দুটি উপজেলায় সব চেয়ে বড়। তিন বছর ধরে আদর-যত্নে লালন-পালন করেছি। শখ করে এদের নাম রেখেছি মেসি ও নেইমার। মেসি ও নেইমারকে দেশি খৈল, ভুট্টা, ভুসি ও গাছের পাতা খাইয়ে লালন-পালন করেছি। দুটির ওজন প্রায় ১৮০ কেজি।’

তিনি বলেন, ‘গোবিন্দাসী পশুর হাটে মেসি ও নেইমারকে তোলা হয়েছে। দুটির দাম চাচ্ছি পাঁচ লাখ টাকা। বড় খাসির ক্রেতা খুবই কম। অনেকেই দেখতে আসছেন, কিন্তু কেউ দাম বলছেন না। বিক্রি করা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি।’

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. স্বপন দেবনাথ বলেন, ‘রাজস্থান হারিয়ানা জাতের খাসি দুটি উপজেলায় সবচেয়ে বড়। এই জাতের ছাগল দ্রুত বর্ধনশীল হয়। লালন-পালন করলে খামারিও বেশি লাভবান হন।’


মন্তব্য