ছয় ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি সীতাকুণ্ডের তুলার গুদামের আগুন

তুলার গুদামের আগুন
তুলার গুদামের আগুন  © সংগৃহীত

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার ছোট কুমিরা এলাকায় নেমসন কনটেইনার ডিপোর বাইরে একটি তুলার গুদামে লাগা আগুন ৬ ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিট কাজ করছে।

শনিবার (১১ মার্চ) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স চট্টগ্রাম সদর দপ্তরের উপসহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আব্দুল হামিদ জানান, আগুন নেভাতে গিয়ে ঘটনাস্থলে আশপাশে থাকা সব জলাশয়ের পানি শেষ হয়ে গেছে। ফলে আধা কিলোমিটার দূর থেকে পানি এনে আগুন নির্বাপণের কাজ করছেন তারা।

তিনি বলেন, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায়। আগুন নেভাতে সীতাকুণ্ড ও কুমিরাসহ ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিট কাজ করছে। তবে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

আরও পড়ুন: বাকৃবিতে স্নাতক প্রথম বর্ষের ওরিয়েন্টেশন ১৬ মার্চ, ক্লাস শুরু ১৯ মার্চ।

তিনি জানান, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে শুরুতে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট কাজ শুরু করেছিল। আগুন ছড়িয়ে পড়তে শুরু করলে আরও ইউনিট যুক্ত করা হয়। এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের তথ্য পাওয়া যায়নি।

কুমিরা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন কর্মকর্তা সুলতান মাহমুদ বলেন, গুদামে বান্ডিল আকারে তুলা রাখা ছিল। খবর পাওয়ার পাঁচ মিনিটের মধ্যেই আমরা আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেছি। কিন্তু আশপাশে পানির উৎস নেই বলে আগুন নেভাতে দেরি হচ্ছে। তুলার আগুন সহজে নেভে না। সে জন্য পুরোপুরি নির্বাপণে কিছুটা সময় লাগছে।  

এর আগে গত ৪ মার্চ বিকেলে একই এলাকার সীমা অক্সিজেন লিমিটেডে বিস্ফোরণে ৭ জন নিহত ও ২৪ জন আহত হয়।