কওমি মাদ্রাসা বন্ধ, যারা খোলা রাখবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: নওফেল

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল
শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল  © ফাইল ফটো

কওমি মাদ্রাসা বন্ধ রাখার বিষয়ে সরকারি নির্দেশনার পরও যারা এসব প্রতিষ্ঠান খোলা রাখবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনার দ্বিতীয় ডোজের টিকা গ্রহণ করতে এসে তিনি এ কথা জানান।

শিক্ষা উপমন্ত্রী বলেন, করোনাকালীন অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মতো কওমি মাদরাসা বন্ধ রাখতে হবে। যারা খোলা রাখবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ইতোমধ্যে পুলিশ প্রশাসনের কাছেও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে।

তিনি বলেন, আজ থেকে কওমি মাদরাসাগুলোর বিষয়ে মনিটরিং শুরু হবে। তবে এতিমদের জন্য শুধুমাত্র এতিমখানা খোলা রাখা হবে।

এর আগে গত মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) এতিমখানা ছাড়া দেশের সব কওমি, আবাসিক-অনাবাসিক মাদ্রাসা বন্ধ রাখতে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এতে বলা হয়েছে, দেশে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় মাদ্রাসাসহ দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে গত ২৯ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় প্রজ্ঞাপন জারি করে। আগামী ২২ মে পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্তের কথাও জানায় সরকার।

কওমী মাদ্রাসার সনদের স্বীকৃতির বিষয়ে নওফেল বলেন, কওমি শিক্ষার সর্বোচ্চ ডিগ্রি জাতীয়ভাবে সম্মান দিয়ে ইসলামিক স্টাডিজ এ মাস্টার্সের স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। যদি ধ্বংসাত্মমূলক কার্যক্রম হেফাজত চালিয়ে যায়, অপরাধমূলক কাজ করতে থাকে, তাহলে ডিগ্রির যে স্বীকৃতি সে বিষয়টি নিয়ে বিবেচনা করে দেখতে হবে।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ