আমরণ অনশনে খুবির ২ শিক্ষার্থী

খুবির দুই শিক্ষার্থীর অনশন
খুবির দুই শিক্ষার্থীর অনশন  © ফাইল ফটো

বহিষ্কারাদেশ প্রত্যার না হওয়া পর্যন্ত আমরণ অনশন শুরু করেছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) সেই দুই শিক্ষার্থী। মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকে তারা ক্যাম্পাসের প্রশাসনিক ভবনের সামনে এ অনশন শুরু করেন। এর আগে রোববার সন্ধ্যা থেকে তারা একই স্থানে অনশন করেছেন। এখনো দুই শিক্ষার্থীর অনশন চলমান রয়েছে।

দুই শিক্ষার্থী হলেন- খুবির বাংলা ডিসিপ্লিনের মোহাম্মদ মোবারক হোসেন নোমান (১৮ ব্যাচ) এবং ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের ইমামুল ইসলাম।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, শিক্ষার্থীদের পাঁচ দফা আন্দোলনে যুক্ত থাকার কারণে তাদেরকে অন্যায়ভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। পাঁচ দফা দাবির মধ্যে ছিল বেতন কমানো, আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ, চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নত করা, অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে অবকাঠামো নির্মাণ ও ছাত্রবিষয়ক সিদ্ধান্ত গ্রহণে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা।

পড়ুন: অনশনকারী শিক্ষার্থীদের আত্মপক্ষ সমর্থন করতে বললেন খুবি ভিসি

তারা জানান, আন্দোলনে যুক্ত থাকায় এ বহিষ্কারাদেশ দেয়া হয়েছে। কয়েক দফায় বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানালেও কর্তৃপক্ষ তাদের দাবির বিষয়ে কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় তারা আমরণ অনশন শুরু করেছেন।

এর আগে গত ১৩ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রবিষয়ক পরিচালক ও শৃঙ্খলা বোর্ডের সদস্য সচিব মো. শরীফ হাসান লিমন বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছেন, আবাসিক হলে জুনিয়র শিক্ষার্থীদের রাতভর শারীরিকভাবে নির্যাতন ও গালিগালাজ করার অপরাধে পাঁচজন এবং তদন্ত ও একাডেমিক কার্যক্রমে বাধা সৃষ্টি করার দায়ে দুইজন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনার পর গত ১৬ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা খুলনা প্রেস ক্লাবে বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহারের জন্য সংবাদ সম্মেলন করেন। পরে বহিষ্কারাদেরশ প্রত্যাহার করে নিতে দুই দফা দাবি জানানেও কোন প্রতিকার না পাওয়ায় মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে আমরণ অনশন শুরু করেছেন এ দুই শিক্ষার্থী।


মন্তব্য

এ বিভাগের আরো সংবাদ