টিকাকেন্দ্রে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, ৯৯৯ নম্বরে ফোন

স্বাস্থ্য সহকারী মমিন প্রামাণিক
আটক স্বাস্থ্য সহকারী মমিন প্রামাণিক  © সংগৃহীত

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে টিকাকেন্দ্রে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে স্বাস্থ্য সহকারী মমিন প্রামাণিককে আটক করে পুলিশ। শনিবার (৭ মে) সন্ধ্যায় উপজেলার মহেশপুর গ্রাম থেকে আটক করা হয় তাকে।

মমিন প্রামাণিকের বাড়ি সাদুল্লাপুর উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামে। সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য সহকারী হিসেবে কর্মরত তিনি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দুপুরে মহেশপুর গ্রামের কেন্দ্রে টিকা (বয়ঃসন্ধি) কার্যক্রম চলছিল। কেন্দ্রে মমিন প্রামাণিক দায়িত্বে ছিলেন। এ সময় ওই স্কুলছাত্রী টিকা নিতে গেলে মমিন যৌন নির্যাতন করেন। একপর্যায়ে ওই ছাত্রী চিৎকার দিলে মমিন রুমের বাইরে চলে আসেন।

আরো পড়ুন: পাবজি আর পর্নো আসক্ত নিয়ে ঘর ছাড়ার ৫ মাস পর স্কুলছাত্র উদ্ধার

পরে উপস্থিত লোকজন মমিনকে আটকের চেষ্টা করেও ধরতে পারেননি। এ সময় এক ব্যক্তি জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। খবর পেয়ে পুলিশ সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে মমিনকে আটক করে।

সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার রায় বলেন, অভিযান চালিয়ে মমিনকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


x