৯ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত সোমবারের মধ্যে

সরকারি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান
সরকারি বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের লোগো  © ফাইল ফটো

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন ধরে আটকে রয়েছে ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারী পরীক্ষা। তবে চাকরিপ্রার্থীদের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে আগামী ১৯ মার্চ এ বিসিএসের প্রিলি নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। এছাড়া চিকিৎসকদের জন্য ৪২তম বিশেষ বিসিএস আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি নেওয়া হবে। এ অবস্থায় করোনার কারণে সরকারি ৯ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের যেসব নিয়োগ পরীক্ষা আটকে রয়েছে, সেগুলোরও তারিখও ঘোষণা করা হবে বলে আশা করছেন চাকরিপ্রার্থীরা।

জানা গেছে, ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটিও (বিএসসি) বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে বড় আকারের নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করার উদ্যোগ নিয়েছে। বেশি পদগুলোর বিপরীতে নিয়োগ পরীক্ষা আগামী ফেব্রুয়ারি শেষ দিকে শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এ বিষয়ে আগামী সপ্তাহে সিদ্ধান্ত আসতে পারে।

সূত্র জানায়, করোনার কারণে বিএসসির অধীন বেশি সংখ্যক পদের পরীক্ষা হচ্ছে না দীর্ঘদিন। তবে কম সংখ্যক পদের পরীক্ষা ও আটকে থাকা সাক্ষাৎরগুলো চলছে। এখন বিসিএস পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করায় ক্রমান্বয়ে ব্যাংকের বেশি সংখ্যক পদের সার্কুলারের নিয়োগ পরীক্ষা নেওয়ার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর। এরপরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যস্থাপক ও  বিএসসি’র সদস্য সচিব আরিফ হোসেন খান আজ বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) সকালে দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ‘বিসিএস পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার বিষয়টি রাতেই জেনেছি। আজ এ বিষয়ে গভর্নরের সঙ্গে কথা বলবো। তবে সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস হওয়ায় কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না। আগামী রোববার কিংবা সোমবার এ বিষয়ে একটা সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে।’

কবে নাগাদ পরীক্ষা নেওয়ার সম্ভাবনা আছে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিসিএসের বড় পরীক্ষাটির তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে আগামী মার্চে। সে হিসেবে আমরা ফেব্রুয়ারির শেষে কিংবা মার্চে পরীক্ষা নিতে পারবো কিনা সে বিষয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।’

৪৩তম বিসিএসের কার্যক্রম শেষ হবে এক বছরে: পিএসসি চেয়ারম্যান

জানা গেছে, ৯ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বেশকিছু পদের বিপরীতে নিয়োগ পরীক্ষা আটকে গেছে করোনাভাইরাসের কারণে। তবে গত নভেম্বরে সাত ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার (২০১৮ সালভিত্তিক) পদে নিয়োগ পরীক্ষার উদ্যোগ নেওয়া হয়। কিন্তু শেষ মুহুর্তে তা বাতিল করে দেওয়া হয়। এরপর বড় আকারে আর কোনো পরীক্ষা নিতে পারেনি বিএসসি। 

এদিকে ২০১৮ সালভিত্তিক কয়েকটি নিয়োগ পরীক্ষা এখনো অনুষ্ঠিত না হলেও ২০১৯ সালভিত্তিক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ শুরু করেছে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি (বিএসসি)। পর্যায়ক্রমে সব পদের জন্য এ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে বলে নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি কিছুটা সময় নিয়ে প্রকাশ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

সূত্র জানায়, ২০১৯ সালভিত্তিক বড় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিগুলো আরও সময় নিয়ে প্রকাশ করা হবে। তবে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের জরুরি চাহিদা থাকায় এর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আগেই প্রকাশ করা হয়েছে। গত বছর কিছু পরীক্ষা আটকে থাকায় ধীরে ধীরে করে বড় বিজ্ঞপ্তিগুলো প্রকাশের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, ৯ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অন্তত ৯০ শতাংশ পদ অফিসার (ক্যাশ), অফিসার এবং সিনিয়র অফিসার। এর বাইরের ১০ শতাংশ আরও অসংখ্য পদ রয়েছে।

বিএসসির অধীন ৯ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, জনতা ব্যাংক লিমিটেড, রুপালী ব্যাংক লিমিটেড, বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক, হাউজ বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন, ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ এবং কর্মসংস্থান ব্যাংক।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ