সন্ধ্যা নামলেই ছিনতাই আতঙ্ক ঢাবি ক্যাম্পাসে

সন্ধ্যা নামলেই ছিনতাই আতঙ্ক ঢাবি ক্যাম্পাসে
ছিনতাইকারীকে হাতে নাতে ধরে প্রশাসনের কাছে সোপর্দ করে শিক্ষার্থীরা  © সংগৃহীত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী হাসিবুল হাসান হাসিব। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় সাইকেল নিয়ে কার্জন হল থেকে টিএসসি যাচ্ছিলেন। কিন্তু একটু পথ এগুতেই দেখেন তার সামনের রিকশার পেছনে একটা ছেলেকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখেন। প্রথমে সে বিষয়টি তেমন গুরুত্ব দেয়নি। আরেকটু পথ এগুতেই ওই রিকশা থেকেই যাত্রীর চিৎকার— ছিনতাইকারী, ছিনতাইকারী...।

হাসিবের ভাষ্য, ওই রিকশার যাত্রী ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হলের এক শিক্ষার্থী। তার পকেট থেকে ফোনটি নেওয়ার চেষ্টা করে ছিনতাইকারী ওই যুবক। এসময় সঙ্গে সঙ্গে সাইকেল থেকে নেমে ছিনতাইকারীকে হাতেনাতে আটক করে প্রক্টরিয়াল টিমের হাতে তুলে দেন তিনিসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত কয়েকজন।

জানা যায়, শুধু এই ঘটনা নয়, ঢাবি ক্যাম্পাসে প্রায় প্রতিনিয়তই এ ধরণের ঘটনার সম্মুখীন হতে হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে পথচারী আর ঘুরতে আসাদেরও। এসব ঘটনা ঘটলেও সেগুলো ঠেকাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কোনো জোর তৎপরতা নেই। প্রতিবারই ঘটনার পর তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, ব্যবস্থা নেবো কিংবা নেওয়া হবে।

এসব ছিনতাইয়ের ঘটনায় ক্যাম্পাস এলাকায় আতঙ্কিত বোধ করার কথা জানিয়েছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের অনেকে। তাদের মতে, অবিলম্বে এসব ঘটনায় প্রশাসনকে নড়েচড়ে বসতে হবে, তা না হলে শিক্ষার্থীরা জানে কিভাবে নিরাপদ ক্যাম্পাস তৈরি করতে হয়।

এদিকে, গতকালকে ঘটনার পর শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রসাশনের কাছে কয়েকটা দাবি তুলে ধরেন। এগুলোর মধ্যে রয়েছে-যে কোনো ধরনের বড় দুর্ঘটনা ঘটার আগেই ক্যাম্পাস থেকে ভবঘুরে-বহিরাগত উচ্ছেদসহ যানবাহন নিয়ন্ত্রণে ক্যাম্পাসের প্রতিটি প্রবেশদ্বারে তল্লাশি চৌকি স্থাপন করতে হবে; দোয়েল চত্ত্বর থেকে হাইকোর্ট হয়ে কবি সুফিয়া কামাল হল এই অংশে প্রক্টরিয়াল টিমকে তৎপর থাকতে হবে; নীলক্ষেত থেকে সমাজকল্যাণ ইনস্টিটিটিউট পর্যন্ত সকলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে; মেট্রোরেল স্টেশনের নিচের অংশে অতি দ্রুত আলোকায়নের ব্যবস্থা করতে হবে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, এ ঘটনায় প্রক্টরিয়াল টিম ব্যবস্থা নিয়েছে। আমি বিষয়টা দেখছি।

শিক্ষার্থীদের দাবি নিরাপদ ক্যাম্পাস এই বিষয়ে আপনাদের পদক্ষেপ কি, এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ক্যাম্পাস নিরাপদেই আছে। উন্মুক্ত ক্যাম্পাসের কারণে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ঘটে যায়। এটা যত সহনীয় পর্যায়ে আনা যায়, একদম বন্ধ করা যায় সেজন্য আমরা কাজ করছি।

ছিনতাইকারীকে হাতেনাতে আটক করার পর নিচের ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার করেন হাসিব


মন্তব্য

x