হায়দরাবাদে কোনো ক্ষমতাই ছিল না ওয়ার্নারের!

ডেভিড ওয়ার্নার
সানরাইজার্স হায়দরাবাদের অধিনায়কত্ব হারিয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার  © ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

দলের কোনো নিয়ন্ত্রণই ছিল না ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে। এমনটাই মনে করছেন অজয় জাদেজা। ডেভিড ওয়ার্নারকে টুর্নামেন্টের মাঝপথেই নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হঠাৎ করেই আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচের আগে দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছিল কেন উইলিয়ামসনের হাতে। এমন সিদ্ধান্ত অনেকেই কার্যত হজম করতে পারছেন না।

তারপরেই অজয় জাদেজা এক ক্রিকেট শোতে বলে দিলেন, দলের নিয়ন্ত্রণটাই নাকি ছিল না তাঁর হাতে। ‘ওয়ার্নারের হাতে দলের রাশটাই ছিল না। হয়ত টিম ম্যানেজমেন্ট, কোচ- অন্য কেউ হয়ত পিছন থেকে দল চালিয়ে থাকতে পারে। তবে এটা স্পষ্ট ওয়ার্নারকে পুরো ক্ষমতা দেওয়া হয়নি। এমনকি এটা ও নিজেই স্বীকার করেছে যে দলের প্রথম একাদশ গড়াতেও ওঁর ভূমিকা নেই। দিল্লি ম্যাচে মনীশ পান্ডেকে বাইরে রাখার পর প্রকাশ্যেই উষ্মা প্রকাশ করে ও।’

ক্রিকবাজকে এমনটাই জানিয়েছেন জাদেজা। ওয়ার্নারকে শুধু নেতৃত্ব থেকেই সরিয়ে দেওয়া নয়, রাজস্থান ম্যাচে প্রথম একাদশের বাইরে রাখা হয়েছে তারকা অস্ট্রেলীয়কে। ওয়ার্নারের অধিনায়কত্বে ছয় ম্যাচ খেলে মাত্র দুই পয়েন্ট সংগ্রহ করে লিগ টেবিলের তলানিতে সানরাইজার্স।

ওয়ার্নার ব্যাট হাতে রান পেলেও স্ট্রাইক রেট নিয়ে সমস্যায় পড়েছেন। ছয় ম্যাচে দুটি হাফসেঞ্চুরিসহ ১৯৩ রান করলেও স্ট্রাইক রেট একদম শোচনীয় ১১০.২৯। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে হাফসেঞ্চুরি করলেও ওয়ার্নারের স্ট্রাইক রেট ছিল একদম কম। এ কারণে স্কোরবোর্ডে বড় রান তুলতে সমস্যায় পড়ছে হায়দরাবাদ।

এই প্রথমবার কেন উইলিয়ামসন ওয়ার্নারকে সরিয়ে নেতা হলেন। এর আগে ওয়ার্নার বল বিকৃতি কাণ্ডের জেরে নির্বাসিত হওয়ার সময় দায়িত্ব সামলেছিলেন কেন উইলিয়ামসন। ২০১৮ সালে কিউই তারকা দলকে ফাইনালেও তোলেন। প্রতিপক্ষ ছিল সিএসকে। খবর: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ