লেকে ডুবে আইইউটি ছাত্র ফাহিমের মৃত্যু

ফারহান শাহরিয়ার ফাহিম
ফারহান শাহরিয়ার ফাহিম  © টিডিসি ফটো

গোসলে গিয়ে ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির (আইইউটি) এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে তিনি গোসলে নেমে বন্ধুদের সঙ্গে সাতার কাটতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ডুবে যান। পরে তাকে উদ্ধার করে বিশ্বদ্যিালয়ের মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শুক্রবার (১৭ জুন) দুপুর ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। ওই শিক্ষার্থীর নাম ফারহান শাহরিয়ার ফাহিম। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল এন্ড এনভাইরোনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাসা রাজধানীর উত্তরায়।

ফাহিমের সহপাঠীরা জানিয়েছেন, সে তার বন্ধুদের সঙ্গে দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে গোসল করতে যায়। এসময় তার সঙ্গে আরও ৯-১০ জন ছিলেন। তারা সবায় সাঁতার জানলেও একপর্যায়ে সাঁতার কাটতে কাটতে ফাহিম ও আলভি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লেকের গভীরে চলে যান।

আরও পড়ুন: কেন শিক্ষার্থীদের আগ্রহের শীর্ষে রয়েছে সাত কলেজ?

তাদের ডুবে যাওয়া দেখে পাশ থেকে কয়েকজনের চিৎকার শুনে একজন গিয়ে ফাহিমের সঙ্গে থাকা আলভিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন। কিন্তু ফাহিম বেশি গভীরে চলে যাওয়ায় তাকে তাৎক্ষণিক উদ্ধার করা সক্ষম হয়নি। পরে আনসার সদস্যরা এসে তাকে উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেলে নিয়ে গেলে তাকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকের পাশে বৃষ্টিতে অনেকে ফুটবল খেলছিল। তারা তখন লেকে গোসল করা শিক্ষার্থীদের চিৎকার শুনে লেকের দিকে আসেন। পরে তারা এসে শুনেন ফাহিম ডুবে গেছে। তারপর আনসার সদস্যরা এসে তার মরদেহ উদ্ধার করে মেডিকেলে নিয়ে যান।

ফাহিমের অকাল মৃত্যুতে ক্যাম্পাসে শোকে ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও তার সহাপাঠীরা। ক্যাম্পাসের ফাহিমের বড় ভাই তাহসিন মোহাম্মদ সামিন বলেন, ফাহিম আমাদের ছেড়ে অকালে চলে গেছে। তার এমন মৃত্যু আমাদের জন্য অপূরণীয় শূণ্যতা নিয়ে এসেছে।


x