টিকা নিতে এসে ইভটিজিংয়ের শিকার ছাত্রীরা

টিকা নিতে এসে ইভটিজিংয়ের শিকার ছাত্রীরা
টিকা নিতে এসে ইভটিজিংয়ের শিকার ছাত্রীরা  © সংগৃহীত

কুড়িগ্রামে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের একাধিক ছাত্রী টিকা নিতে এসে ইভটিজিংয়ের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন। কয়েকজন টিকা না নিয়ে বিরক্ত হয়ে ফিরেও যান। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সদর উপজেলার জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগীরা জানিয়েছেন, হাসপাতালটিতে জেলা সদরের বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা নিজেদের জন্মনিবন্ধনের সনদপত্র দেখিয়ে টিকা নিয়েছেন। টিকা কেন্দ্রে ছেলেদের জন্য আলাদা বুথ এবং মেয়েদের জন্য আলাদা বুথ রয়েছে।

আরও পড়ুন: করোনা টিকা নিবন্ধনের বয়স ৩৫ বছর: স্বাস্থ্য অধিদফতর

মেয়েদের বুথের সামনে, মেয়েদের লাইনের আশেপাশে হাসপাতালের ৩টি প্রবেশ পথে ছেলে শিক্ষার্থীরা দলবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে মেয়েদের নানান কটূক্তি করেছেন। অনেকে মেয়েদের প্রপোজ করছেন, দিচ্ছেন শিষ। এতে মেয়ে শিক্ষার্থীরা বিরক্ত হয়ে অনেকে টিকা না নিয়ে বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন।

কুড়িগ্রাম মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রী বলেন, ১০ টার সময় এসেছি টিকা নিতে, দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে আছি খারাপ লাগছে,এরপর আবার ছেলেরা বাজে বাজে কথা বলছে,তাই টিকা না নিয়ে বাসায় চলে যাচ্ছি।

আরও পড়ুন: চবি মেডিকেল সেন্টারে করোনা টিকা কার্যক্রম শুরু

হাসপাতালের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশের উপপরিদর্শক (এএসআই) আনোয়ারুল করীম বলেন, আমরা হাসপাতালের পুলিশ বক্সের দায়িত্বে রয়েছি, টিকা কেন্দ্রে আমাদের দায়িত্ব নেই, তারপরও বিষয়টি দেখছি।

এ কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. পুলক কুমার বলেন, আমরা টিকার বিষয়টি দেখছি না, এটা জেলা সিভিল সার্জন ও সদর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স দেখে।


মন্তব্য

x