‘আপনাকে কিছু বলিনি’, তেড়ে আসা সুজনকে সাকিব

সুজন-সাকিব
খালেদ মাহমুদ সুজন ও সাকিব আল হাসান একে অপরের প্রতি ক্ষিপ্ত হলে আবাহনী-মোহামেডানের ক্রিকেট ম্যাচে উত্তপ্ত পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়  © সংগৃহীত

ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে সাকিব আল হাসান একবার ভাঙলেন স্টাম্প, আরেকবার তুলে ফেললেন স্টাম্প। পরে ক্ষিপ্ত হয়ে ড্রেসিংরুমে ফেরার পথে প্রতিপক্ষ আবাহনীর কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনের সঙ্গে তর্কে জড়ালেন।

আবাহনীর ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে বৃষ্টি নামলে আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান খেলা বন্ধের ঘোষণা দেন। মাঠকর্মীদের কাভার আনার ইশারা দিচ্ছেন, তখন সাকিব আম্পায়ারের দিকে এগিয়ে গিয়ে তিনটি স্টাম্পই তুলে উইকেটে আছাড় মারেন।

খেলোয়াড়েরা যখন মাঠ ছাড়ছিলেন তখনো নিজেকে সামলে নেননি সাকিব। এ সময় আবাহনীর ড্রেসিংরুমের দিকে তাকিয়ে সাকিব কিছু একটা বললে তাঁর দিকে তেড়ে আসেন কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন। এগিয়ে যান সাকিবও। মোহামেডানের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার তখন জাপটে ধরে থামান সাকিবকে। মাহমুদকেও থামান মোহামেডানের শামসুর রহমান।

পরে অবশ্য ওই ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব। আবাহনীর ম্যানেজার মাসুদ ইকবাল মামুন ঢাকা পোস্টকে বলেন, ‘ঘটনার পর সাকিব এসেছিলেন আমাদের ড্রেসিংরুমে। তিনি আমাদের কাছে এই ঘটনার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। সেখানে খালেদ মাহমুদ সুজনও ছিলেন। বিষয়টি মীমাংসা হয়ে গেছে। পরে দুজন বুক মিলিয়েছেন।’

সুজন ভেবেছিলেন, সাকিব তাঁকে কিচু একথা বলেছেন। কিন্তু সুজনকে সাকিব পরে বোঝানোর চেষ্টা করেন। তিনি বলেন, আবাহনীর সমর্থকেরা গালি দেওয়ায় তাদের পাল্টা বলেছি, আপনাকে কিছু বলিনি।

তিন তিনবার মেজাজ হারানোর এমন একটা ঘটনার পর সাকিব বড় ধরনের শাস্তি পেতে যাচ্ছেন বলে অনেকেই মনে করছেন।


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ