বুয়েটে প্রথম, ঢাবিতেও প্রথম তারা

ভর্তির সুযোগ
সিয়াম ও আসীর  © টিডিসি ফটো

উচ্চ মাধ্যমিকের গণ্ডি শেষে উচ্চশিক্ষার জন্য ভালো একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া যেকোনো শিক্ষার্থীর জীবনে সবচেয়ে বড় স্বপ্ন। এ কারণেই প্রতিবছর ভর্তির সময় শীর্ষ পর্যায়ের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় তীব্র ভর্তি প্রতিযোগিতা দেখা যায়। প্রতিযোগিতায় যারা জয়ী হন, তাদের সাফল্যের পেছনেও থাকে অনেক পরিশ্রম আর না বলা গল্প।

তবে এই পরীক্ষায় চান্স পাওয়ার পাশাপাশি যারা প্রথম স্থান অধিকার করা কতটা গুরুত্বপূর্ণ, তা বুঝা যায় ফল প্রকাশের পর। প্রথম স্থান অধিকারকারীরা পরিবার তো বটেই, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ভাসেন অগাধ প্রশংসায়। পত্র-পত্রিকায় গুরুত্ব দিয়ে ছাপা হয় তাদের সফলতার গল্প।

আর যদি প্রথম সারির দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে দুটিতেই প্রথম স্থান অধিকার করেন, সেটাকে তো তাহলে ‘বাজিমাত’ ছাড়া অন্য কিছু বলা দায়। পরপর দু’বছর এমনটাই দেখা গেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বুয়েট ভর্তি পরীক্ষার ক্ষেত্রে। বাজিমাতের কৃতিত্ব বগুড়ার মেফতাহুল আলম সিয়াম ও মুন্সিগঞ্জের আসীর আন্‌জুম খান। প্রথমজন ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ও দ্বিতীয়জন সদ্য ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ক ইউনিট) প্রথম স্থান অধিকার করেছেন। তাদের এমন ঈর্ষণীয় সাফল্যে খুশি ওই শিক্ষার্থীদের পরিবার ও শিক্ষকরা।

শুধু ঢাবি-বুয়েটে নয়, এই দুই শিক্ষার্থী মেডিকেল ও আইইউটির ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেও কৃতিত্বের সঙ্গে মেধা তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন।

বুয়েটের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ছাত্র মেফতাউল আলম সিয়াম গত বছর (২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ) একাধারে আইইউটি-বুয়েট-ঢাবি ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হয়েছিলেন। তাছাড়া মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় ৫৯তম হয়েছিলেন তিনি। প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার তৃতীয় স্থান অধিকার করেন বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের এই শিক্ষার্থী।

এবার বুয়েট ও ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায় এবার সেরাদের সেরা হয়েছেন আসীর আন্‌জুম খান। এর আগে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় ষষ্ঠ অবস্থানে রয়েছেন। এছাড়া গাজীপুরে অবস্থিত ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির (আইইউটি) ভর্তি পরীক্ষায় অষ্টম হয়েছিলেন তিনি। সিয়ামের মতো আসীর আন্‌জুম খানও জানালেন, তাঁর স্বপ্ন বুয়েটে পড়ার এবং তিনি বুয়েটেই ভর্তি হবেন।

মেধাবী শিক্ষার্থী আসীর আন্‌জুমের গ্রামের বাড়ি মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলায়। তবে বাবার চাকরিসূত্রে তাঁর জন্ম কুমিল্লায়। আর স্কুল-কলেজের পড়াশোনা ঢাকায়। উচ্চমাধ্যমিক শেষ করেন নটর ডেম কলেজ থেকে।


x

সর্বশেষ সংবাদ