জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

প্রথমবারের মতো ডিগ্রি ও স্নাতকধারীদের কর্মমুখী ৬ পিজিডি কোর্সে ভর্তির সুযোগ

ভর্তি
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়  © ফাইল ছবি

দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার লক্ষ্যে গত বছরের জুনে কর্মমুখী ১২টি পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ডিপ্লোমা (পিজিডি) কোর্স চালু সিদ্ধান্ত নিয়েছিল জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল। তবে ২০২৩-২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্রথম ব্যাচে ৬টি পিজিডি কোর্স চালু করা হচ্ছে। এসব কোর্সের মেয়াদ হবে এক বছর (দুই সেমিস্টার)। ইতোমধ্যে অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তি আবেদন শুরু হয়েছে। দেশের যেকোন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ও ডিগ্রি ও স্নাতকধারী প্রার্থীরা এসব কোর্সে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন।

বিশ্ববিদ্যালয় সংশ্লিষ্টরা বলছেন, যুগের চাহিদার নিরিখে বিশ্ববিদ্যালয়টির একাডেমিক ও ফিজিক্যাল মাস্টার প্ল্যান প্রণয়ণ করা হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে দক্ষ জনবল তৈরির লক্ষ্যে ১২টি কর্মমুখী পিজিডি কোর্স চালুর অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সবকটি কোর্সের আউটলাইন তৈরি করা থাকলেও প্রথমবার ৬টি কোর্স চালু করা হবে। এর মধ্য দিয়ে শিক্ষার্থীরা দেশে এবং বিদেশে নতুন কর্মসংস্থানে যুক্ত হতে পারবে। শুরুতে এটির ক্যাম্পাস হবে শুধুমাত্র রাজধানী ঢাকায়। পর্যায়ক্রমে দেশের অন্যান্য কলেজেও পড়ানো হবে এসব কোর্স। 

প্রথমবার পিজিডি ইন ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (আইসিটি), ল্যাঙ্গুয়েজ (ইংরেজি, আরবি), অন্টাপ্রেনারশিপ, ডিজিটাল মার্কেটিং, আইসিটি ইন অ্যাকাউন্টিং এন্ড বিজনেস ও সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামে ভর্তি হতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

অনলাইনে গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ শুরু হয়ে চলবে আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। অনলাইন গেটওয়ে অথবা পে-স্লিপ ডাউনলোড করে প্রাথমিক আবেদন ফি বাবদ ৫০০ টাকা ২৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে জমা দিয়ে আবেদন ফরমের প্রিন্ট কপি সংগ্রহ করতে হবে।

ভর্তি কার্যক্রমে আবেদনকারী প্রার্থীদের লিখিত পরীক্ষা, স্নাতক পর্যায়ে উত্তীর্ণ পরীক্ষার ফলাফল এবং মৌখিক পরীক্ষার ভিত্তিতে মেধাতালিকা প্রণয়ন করা হবে। ১০ মার্চ লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ শিক্ষাবর্ষের ক্লাস ৩০ মার্চ থেকে শুরু হবে। প্রতিটি কোর্সের ভর্তি ও টিউশন ফি সব মিলিয়ে ৬০ হাজার টাকা ব্যয় হবে।

জানতে চাইলে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, আমাদের দক্ষ জনশক্তিকে যদি সারা পৃথিবীব্যাপী ছড়িয়ে দিতে পারি তাহলে আগামী প্রজন্ম দেশ এবং বিশ্ব গড়ার মানুষ হবে। এরই অংশ হিসেবে ১২টি কর্মমুখী পিজিডি কোর্স চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে প্রথমবার ৬টি কোর্স চালু করা হবে। যদিও সবকটি কোর্সের আউটলাইন তৈরি করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, প্রথমবার ঢাকার শুক্রাবাদের একটি ভাড়া ভবনে এসব কোর্সের ক্লাস শুরু হবে। আমরা আপাতত অন্যকোন কলেজে এসব কোর্স চালু করছি না। তবে আগামীতে বড় বড় কলেজগুলোতেও চালু করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২ জুন গাজীপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ক্যাম্পাসের সিনেট হলে একাডেমিক কাউন্সিলের ৯৫তম সভায় ১২টি পিজিডি কোর্স চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এসব কোর্সগুলো হলো— ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (আইসিটি), ল্যাঙ্গুয়েজ (ইংরেজি, আরবি), অন্ট্রাপ্রেনিউরশিপ, ফার্মিং টেকনোলজি, ডেটা অ্যানালাইসিস, ট্যুরিজম অ্যান্ড ট্রাভেল ম্যানেজমেন্ট, সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট, ডিজিটাল মার্কেটিং, ক্যাপিটাল মার্কেট অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, সার্টিফায়েড অ্যাকাউন্টিং টেকনিশিয়ান, সাইবার সিকিউরিটি ও সিকিউরিটি ম্যানেজমেন্ট।


সর্বশেষ সংবাদ