কমিটি পছন্দ হয়নি, ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে পাঠালেন হাসপাতালে

লোকমান হোসেন সাগর
সুবর্ণচরের লোকমান হোসেন সাগর নামে ছাত্রলীগের এক নেতাকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে  © সংগৃহীত

নোয়াখালীর সুবর্ণচরের লোকমান হোসেন সাগর (২৮) নামে ছাত্রলীগের এক নেতাকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠানোর অভিযোগ মিলেছে। চরজব্বর ডিগ্রি কলেজে পছন্দের কমিটি না দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

নোয়াখালী জজকোর্টের সামনে বুধবার (২৭ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা সাগরকে মুমূর্ষ অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নোয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের উপ-আইন বিষয়ক সম্পাদক সাগর। এ ছাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক তিনি। সাগর উপজেলার উত্তর বাগ্যা গ্রামের মৃত ইব্রাহীম খলিলের ছেলে।

আহত সাগর জানান, ইফতারের পর কর্মস্থল থেকে বের হলে সন্ধ্যা ৭টার দিকে জজকোর্টের সামনে ভুঁইয়ারহাট এলাকার ১০-১২ জন অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় রড, হকিস্টিক ও দেশিয় অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে অজ্ঞান করে ফেলে যায় তারা।

পরে আদালত ভবনের আইনজীবীরা উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান সাগরকে। মাঈন উদ্দিন শাকিল নামে একজনের নেতৃত্বে এ হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ করেন তিনি।

আরো পড়ুন: মাথা ন্যাড়া করে পঞ্চগড়ে আত্মগোপনে ছিলেন কাইয়ুম

লোকমানের বড় ভাই ইউপি সদস্য মো. শাহাজাহান বলেন, ‘উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আবদুল্যাহ আল মামুনের পছন্দের লোককে চরজব্বর ডিগ্রি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটিতে না রাখায় তার নির্দেশে এ হামলা চালানো হয়েছে।’

তবে উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আবদুল্যাহ আল মামুন জাবেদ এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, 'এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। ঈদের পরে নিয়ম মোতাবেক চরজব্বর কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি দেওয়া হবে। এ নিয়ে মতবিরোধ নেই।’

এ বিষয়ে সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘এ ঘটনায় কেউ এখনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’


x

সর্বশেষ সংবাদ