চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশ নিয়ে পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি

প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে বিদেশ নিয়ে বাংলাদেশে অবস্থানকারী পরিবারের পক্ষ থেকে মুক্তিপণের সাড়ে ৭ লাখ টাকা দেওয়া পরও জিম্মি হয়ে আছে রাজশাহীর পুঠিয়া  উপজেলায় মোঃ সবুজ(২৭)। তিনি ভাল্লকগাছী(চকপাড়া) মোঃ সমেজ উদ্দিনের ছেলে। 

জানা গেছে, সবুজ সমেজ উদ্দিনের ছোট ছেলে সংসারে সচ্ছলতা ফেরাতে ২৭ বছর বয়সে পাড়ি জমান লিবিয়ার উদ্দেশ্য। ভিটেবাড়ির একাংশ বিক্রি ধারদেনা করে ও এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে দালালের মাধ্যমে বিদেশে যাওয়ার উদ্দেশ্য বাড়ি ছাড়েন তিনি।

এরপরে অজ্ঞাতনামা দালালেরা তার পরিবারের কাছে মুক্তিপণের টাকা দাবি করে অনেক কষ্টকরে সবুজের পিতা সমেজ উদ্দিন সাড়ে ৭ লাখ টাকা দেন সেই দালালদের।

এ বিষয়ে সবুজের বোন সাথী বেগম বলেন, আমার ভাই গত দুই বছর পূর্বে দালালের মাধ্যমে লিবিয়ায় উদ্দেশ্য বাড়ী ছাড়েন এরপরে অজ্ঞাতনামা দালালরা আমার বাবার কাছে মুক্তিপণ দাবি করে দালালেরা ফোন করে বলে আমাদের টাকা বিকাশ নাম্বারে দিতে হবে সেখানে আমাদের লোক আছে সেই টাকা টা তুলে নিবে আর না টাকা দিলে সবুজ কে মেরে ফেলবো। অনেক কষ্টকরে আমার বাবা সাড়ে ৭ লক্ষ দিলেও আরো টাকার দাবি তাদের।

এ ব্যাপারে আইনগত সহায়তা চেয়ে মোঃ সবুজের বোন মোছাঃ সাথী বেগম বাদী হয়ে পুঠিয়া থানা একটি অভিযোগ দায়ের করেন।


মন্তব্য