এক বছরে আইয়ুব বাচ্চুর গানের রয়্যালটি ৫ হাজার ডলার

করোনা
আইয়ুব বাচ্চু  © ফাইল ছবি

সংগীতশিল্পীর সৃষ্টিকর্মকে সংরক্ষণ ও স্বল্প সুরক্ষায় বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসের এক ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগের অংশ হিসেবে দেশের কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী প্রয়াত আইয়ুব বাচ্চুর সংগীতজীবনের মেধাস্বত্ব সংরক্ষণ ও ডিজিটাল আর্কাইভিং কর্মসূচি বাস্তবায়িত হয়। ২০২০ সালের ১৮ অক্টোবর এ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত প্রতিমন্ত্রী কে এম খালেদ এমপি।

কর্মসূচি বাস্তবায়নের পর স্থানীয় একটি পেশাদার এমসিএন কোম্পানি জেডএম স্টুডিওর সহযোগিতায় আইয়ুব বাচ্চুর কপিরাইট নিবন্ধিত ২৭২ গানের বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া যেমন: ইউটিউব, আই-টিউন, ফেসবুক, অ্যামাজন ইত্যাদি ডিজিটাল মাধ্যমে চ্যানেল ওপেন করে মনিটাইজিং Digital Sinking এর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

গত এক বছরে ওই সোশ্যাল মিডিয়া ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের আইয়ুব বাচ্চুর রেজিস্টার্ড অ্যাকাউন্ট ‘এবি কিচেন’-এর রয়্যালটি হিসেবে ৫০১৪.০৮ মার্কিন ডলার জমা হয়েছে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস। 

তাই আইয়ুব বাচ্চুর পরিবারকে ৫ হাজার ডলার রয়্যালটির টাকা দিয়েছে বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ের ন্যাশনাল আর্কাইভ সেন্টারে একটি বিশেষ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই রয়্যালটি হস্তান্তর করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সাবিহা পারভিন। আইয়ুব বাচ্চুর পরিবারের সদস্য, তার স্ত্রী ফেরদৌস আইয়ুব চন্দনা, ছেলে আহনাফ তাজওয়ার আইয়ুব ও মেয়ে ফাইরুজ সাফরা আইয়ুব অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের কাছ থেকে চেকটি গ্রহণ করেন ফেরদৌস আইয়ুব চন্দনা। 

 


মন্তব্য

সর্বশেষ সংবাদ