গুচ্ছের বিশ্ববিদ্যালয়-সাবজেক্ট চয়েস যেভাবে

গুচ্ছ
ভর্তি পরীক্ষার্থী  © ফাইল ছবি

গুচ্ছভুক্ত ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। আগামী ১৩ ও ২০ আগস্ট ‘খ’ ও ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মধ্য ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে। পরীক্ষা শুরু হয়ে ফল প্রকাশ হলেও ভর্তিচ্ছুদের দুশ্চিন্তা পিছু ছাড়ছে না। কীভাবে বিশ্ববিদ্যালয় ও সাবজেক্ট চয়েস দেওয়া হবে সেটি নিয়ে তাদের ভাবনার শেষ নেই।

বিষয়টি নিয়ে এখনো কাজ করছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল ও কোর কমিটির সদস্যরা। মাইগ্রেশন মেডিকেলের আদলে করা হলেও বিশ্ববিদ্যালয় ও বিষয় পছন্দ কীভাবে হবে সেটি নিয়ে এখনো সিদ্ধান্তহীনতায় আয়োজক কমিটির সদস্যরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর গুচ্ছভুক্ত সবগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ে এক সাথে ভর্তি আবেদন শুরু করা হবে। এক্ষেত্রে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ একজন শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় ও সাবজেক্ট চয়েস দেবে। তার প্রাপ্ত নম্বর অনুযায়ী সে যেকোন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাবে। কোনো ভর্তিচ্ছু প্রথম ধাপে বিষয় না পেলে পরবর্তী ধাপে আবারও আবেদনের সুযোগ পাবেন। তবে কেউ সুযোগ পেয়ে ভর্তি না হলে পরবর্তীতে তিনি পুনরায় আবেদনের সুযোগ পাবেন কিনা সেটি নিয়ে এখনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: গুচ্ছের ‘ক’ ইউনিটে কত পেলে ভর্তির সুযোগ মিলবে?

ওই সূত্র আরও জানায়, আবেদনের ক্ষেত্রে কতটি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কয়টি সাবজেক্ট একসাথে পছন্দক্রম দেওয়া যাবে সেটি নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। এক্ষেত্রে দুইটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। প্রথমটি হলো ভর্তিচ্ছুরা ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়েই একসাথে চয়েস দিতে পারবে। দ্বিতীয় প্রস্তাবনাটি হলো ৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচটি বিষয় পছন্দক্রম দেওয়া যাবে। 

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত টেকনিক্যাল কমিটির আহবায়বক এবং চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নাছিম আখতার দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, কীভাবে বিশ্ববিদ্যালয় এবং সাবজেক্ট চয়েস দেওয়া হবে তা নিয়ে এখনো চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আমাদের কিছু প্রস্তাবনা আছে। এটি চূড়ান্ত হলে সবাইকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

কবে নাগাদ জানানো হবে জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, কাজ চলছে। শিগগিরই বিজ্ঞপ্তি আকারে ওয়েবসাইটে এটি প্রকাশ করা হবে।


x

সর্বশেষ সংবাদ